পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > সারাবাংলা > পুঠিয়ায় জিউপাড়া ইউপির মেম্বারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

পুঠিয়ায় জিউপাড়া ইউপির মেম্বারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, পুঠিয়া : রাজশাহীর পুঠিয়ায় জিউপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য (মেম্বার) মোঃ জামাল উদ্দিন বিরুদ্ধে অনিয়মের মাধ্যমে তার পরিবারের লোকজনের নামে ২২ টি সরকারী সুবিধা ভোগ করার অভিযোগ উঠেছে। তিনি নিজে মেম্বার হওয়ার সুবাদে চেয়ারম্যান ও সচিব এবং কিছু কর্মকর্তা সহযোগীতায় অনিয়মের মাধ্যমে নিজের পরিবার ও আত্মীয় স্বজনদের নামে ভিজিডি, ভিজিএফ, কর্মসূচি, প্রতিবন্ধি, বয়স্কভাতা, বিধাবাভাতা ও ফেয়ার প্রাইজসহ বিভিন্ন রকম প্রায় ২২ টি সুবিধা ভোগ করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের নিকট তদন্ত পূর্বক মেম্বারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী করেন এলাকাবাসী।

উপজেলা পরিষদ থেকে প্রাপ্ত বিভিন্ন প্রকল্পের তালিকা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার ৬ নং জিউপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) মোঃ জামাল উদ্দিন তার ছেলে ইউসুফ কর্মসূচির তালিকা নং ৪৭।

মেম্বারের দুলাভাই শফির উদ্দিন কর্মসূচি তালিকা নং ২১ এবং ফেয়ার প্রাইজ তালিকা নং ৫৬৩। মেম্বারের বোন রেনু, স্বামী শফির উদ্দিন ভিজিডি তালিকা নং ১২৯ এবং ভিজিএফ তালিকা নং ৭৬৮। ভাগ্নে সোহেল, পিতা শফির উদ্দিন কর্মসূচির তালিকা নং ২২, ফেয়ার প্রাইজ তালিকা নং ৫৩৭ এবং ভিজিএফ তালিকা নং ৭৬৯। ভাগ্নি সেলিনা, পিতা শফির ভিজিডি তালিকা নং ১৩৩, ভিজিএফ তালিকা নং ৭৯২, ফেয়ার তালিকা নং ৫৫৭।

অপর এক চাচা সমশের ভিজিএফ তালিকা নং ৭২৪ এবং ফেয়ার তালিকা নং ৫০৬। চাচী বাছেনা শমশেরের ১ম স্ত্রী ফেয়ার তালিকা নং ৫০৫। চাচী ইয়াতন শমশেরের ১ম স্ত্রী ভিজিডি তালিকা নং ১৩৮।

মেম্বারের ফুপাতো ভাই আশরাফুল, পিতা মৃত আবুল কাশেম কর্মসূচির তালিকা নং ৪৩, ফেয়ার প্রাইজ তালিকা নং ৪৫, তার স্ত্রী সাথী ভিজিডি তালিকা নং ১০৩। মেম্বারের আরেক চাচা আঃ ছালাম ফেয়ার তালিকা নং ৪৯০।

মেম্বারের আরেক দুলাভাই তমির উদ্দিন, পিতা মৃত আঃ মন্ডল, ফেয়ার তালিকা নং ৫১২। ভাগ্নে-মিনারুল, পিতা তমির উদ্দিন কর্মসূচীর তালিকা নং ৪৫।

ফুবু রুপজান, স্বামী মৃত আবুল কাশেম, বয়স্কভাতা তালিকা নং ২০৫ নামে সরকারী বিভিন্ন সুবিধা ভোগ করে আসছে।

এলাকাবাসীর দাবী মেম্বার হওয়ায় তিনি তার আত্নীয় সজনদের নামে বে-নামে একাধিক প্রায় ২২ টি সুবিধা ভোগ করছে। তাহলে এলাকায় কি তারাই শুধু গরীব আর কেউ নেই? তাই তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানান প্রশাসনকে।

সদস্য (মেম্বার) মোঃ জামাল উদ্দিন জানান, মেম্বার হয়েছি বলে কি নিজের আত্নীয় সজনকে দেখবো না। আর আমার বিয়ে হয়েছে অন্য ওয়ার্ডে কিন্তু তার জাতীয় পরিচয়পত্র আমার ওয়ার্ডে তার নাম তালিকায় দেওয়া হয়েছে। তাই তাকে তালিকায় রাখা হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন সরকার জানান, আমি নির্বাচনে জয়লাভের পর বিভিন্ন মামলায় বাইরে ছিলাম তাই বিষয়গুলি আমার জানা নাই। আর মেম্বরা যাকে মনোনীত করে তার নামই তালিকায় দেওয়া হয়। আর কারো নাম একাধিক বার আছে কি না আমার জানা নাই। তবে কেউ একাধিক থাকলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করবো।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওলিউজ্জামান জানান, সরকারী নিয়ম অনুযায়ে এক পরিবারের মাত্র একজন ব্যক্তি একটি মাত্র সুবিধার আওতায় থাকবে। কেউ একাধিক সুবিধা পাওয়ার নিয়ম নাই। আর জিউপাড়া ইউনিয়নের বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা আছে। তাদের রির্পোট হতে পেলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।

x

Check Also

রোহিঙ্গা ডাকাতের সন্ধানে পাহাড়ে র‌্যাবের ড্রোন অভিযান

রোহিঙ্গা ডাকাত আবদুল হাকিমের আস্তানার সন্ধান পেতে শরণার্থী শিবিরের নিকটবর্তী পাহাড়ে ড্রোন দিয়ে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টেকনাফের বাহারছড়া টইগ্যা পাহাড়সহ বেশ কয়েকটি দুর্গম পাহাড়ে অভিযান চালানো হয়। তবে ...

এক সপ্তাহের মধ‌্যে আপিল করতে হবে আসামিদের

নুসরাত জাহান রাফি হত‌্যায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের আপিলের জন‌্য এক সপ্তাহ সময় দিয়েছেন আদালত। বৃস্পতিবার ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর আসামি পক্ষের আইনজীবী গিয়াস ...

নুসরাত হত‌্যায় ১৬ জনের মৃত‌্যুদণ্ড

বহুল আলোচিত ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত‌্যা মামলার ১৬ আসামির সবারই মৃত‌্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতনদমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এই রায় ঘোষণা ...

শিরোনামঃ