পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > সারাবাংলা > নুসরাত হত‌্যায় ১৬ জনের মৃত‌্যুদণ্ড

নুসরাত হত‌্যায় ১৬ জনের মৃত‌্যুদণ্ড

বহুল আলোচিত ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত‌্যা মামলার ১৬ আসামির সবারই মৃত‌্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতনদমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এই রায় ঘোষণা করেন। মৃত‌্যুদণ্ডের পাশাপাশি সব আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এই টাকা আদায় করে নুসরাতের পরিবারকে দেয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

নুসরাতকে হত্যার পর প্রায় সাত মাসের মধ্যে বিচার কাজ শেষ হলো। এর আগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালত রায় ঘোষণার জন‌্য আজকের দিন ধার্য করেন।

মৃত‌্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা, নূর উদ্দিন, সোনাগাজীর পৌর কাউন্সিলর মাকসুদ আলম, শাহাদাত হোসেন শামীম, সাইফুর রহমান মোহাম্মদ জোবায়ের, জাবেদ হোসেন ওরফে সাখাওয়াত হোসেন জাবেদ, হাফেজ আব্দুল কাদের, আবছার উদ্দিন, কামরুন নাহার মনি, উম্মে সুলতানা ওরফে পপি ওরফে তুহিন ওরফে শম্পা ওরফে চম্পা, আব্দুর রহিম শরীফ, ইফতেখার উদ্দিন রানা, ইমরান হোসেন ওরফে মামুন, মোহাম্মদ শামীম, মহিউদ্দিন শাকিল এবং আওয়ামী লীগ নেতা ও মাদ্রাসার গভর্নিং বডির সহ-সভাপতি রুহুল আমীন।

রায় ঘোষণার সময় সকল আসামি আদালতের কাঠগড়ায় ছিলেন। আদালতের রায় পড়তে সময় লাগে ১২ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড। রায় পড়ার শুরুতেই গণমাধ্যমের ভূমিকার প্রশংসা করেন। আদালত বলেন, গণমাধ্যমের কারণেই এই ভয়াবহ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা দেশবাসী জানতে পারে।

এর আগে সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে আসামিদের কাঠগড়ায় তোলা হয়। রায় শোনার পর আসামিরা চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন। কেউ কেউ কান্নায় ভেঙে পড়েন। কেউ কেউ জানান উচ্চ আদালতে আপিল করবেন। আসামিরা বাদীপক্ষের আইনজীবীদের অশ্লীল ভাষায় গালাগালি করেন। পরে পুলিশ পাহারায় আইনজীবীদের সরিয়ে দেয়া হয়।

গত ২৭ মার্চ ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন হয়রানির অভিযোগে অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে ৬ এপ্রিল ওই মাদ্রাসার প্রশাসনিক ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে নুসরাতের হাত-পা বেঁধে শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় অধ্যক্ষের সহযোগীরা।

এ ঘটনায় ৮ এপ্রিল নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান আট জনের নাম উল্লেখ করে নুসরাতকে হত‌্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে করা যৌন হয়রানির মামলা তুলে না নেয়ায় নুসরাতকে হত‌্যাচেষ্টা করা হয় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুসরাতের মৃত্যু হয়। এরপর ‘হত‌্যাচেষ্টা’ মামলাটি ‘হত‌্যা মামলায়’ রূপান্তর করা হয়।

এই হত‌্যাকাণ্ড সারা দেশে ব‌্যাপক সাড়া ফেলে। কয়েক দিনের মধ্যে পুলিশ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মামলায় ২১ জনকে গ্রেপ্তার করে। পরে তদন্তে সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় পাঁচ জনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়ার সুপারিশ করা হয়।

অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা, নূর উদ্দিন, শাহাদাত হোসেন শামীম, উম্মে সুলতানা পপি, কামরুন নাহার মনি, জাবেদ হোসেন, আবদুর রহিম শরীফ, হাফেজ আবদুল কাদের, জোবায়ের আহমেদ, এমরান হোসেন মামুন, ইফতেখার হোসেন রানা ও মহিউদ্দিন শাকিল আদালতে হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

x

Check Also

রোহিঙ্গা ডাকাতের সন্ধানে পাহাড়ে র‌্যাবের ড্রোন অভিযান

রোহিঙ্গা ডাকাত আবদুল হাকিমের আস্তানার সন্ধান পেতে শরণার্থী শিবিরের নিকটবর্তী পাহাড়ে ড্রোন দিয়ে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টেকনাফের বাহারছড়া টইগ্যা পাহাড়সহ বেশ কয়েকটি দুর্গম পাহাড়ে অভিযান চালানো হয়। তবে ...

এক সপ্তাহের মধ‌্যে আপিল করতে হবে আসামিদের

নুসরাত জাহান রাফি হত‌্যায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের আপিলের জন‌্য এক সপ্তাহ সময় দিয়েছেন আদালত। বৃস্পতিবার ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর আসামি পক্ষের আইনজীবী গিয়াস ...

পদ্মা সেতুতে বসল ১৫তম স্প্যান

পদ্মা সেতুতে ১৫তম স্প‌্যান বসানো হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে জাজিরা প্রান্তে সেতুর ২৩ ও ২৪ নম্বর খুঁটির ওপর এ স্প্যান (৪-ই) বসানো হয়। এর মাধ্যমে সেতুর মূল অবকাঠামো দৃশ্যমান হলো ২ হাজার ২৫০ ...

শিরোনামঃ