পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > শিল্প ও সাহিত্য > মাহফুজুর রহমান পুষ্পের লেখা কবিতা ‘লঞ্চের কামড়ায় তুমি আমি’

মাহফুজুর রহমান পুষ্পের লেখা কবিতা ‘লঞ্চের কামড়ায় তুমি আমি’

          ‘লঞ্চের কামড়ায় তুমি আমি’

         মোঃ মাহফুজুর রহমান পুষ্প

ঐ একটি দিন’ই ছিল
যেদিন আমাকে পুলকে ভাসিয়ে
না পাওয়ার শূন্যতায় কাঁদিয়ে ছিলে ।
.
যেদিন তুমি আমি ছিলুম
মেঘনায় ভাসমান লঞ্চের কামড়ায় ।
.
তোমার বর্তমান যখন তোমাকে বড্ড বেশী কাতর করে দিয়েছিল ।
.
তোমার কাজল কালো চোখ দুটি যখন
নোনা জলে দশ মাসের পোয়াতী ছিল …..
বৈকালিক রোদ যখন নদীর জলে আলো ছড়িয়ে
মহানন্দে দোল ছিল ।
.
আর তুমি আমি মুখোমুখি বসে আমাবস্যার আঁধারে ডুবতেই ছিলাম ।
.
ঠিক ঐ মুহূর্তেই জানালার ফাঁক খোঁজে
এক টুকরো সোনালী রোদ এসে
তোমার গালে তিড়িং বেড়িং নাচছে শুরু করে ।
এই যেন সদ্য ভূমিষ্ঠ হরিণ শাবক !
.
হায় ! বিষাদ ভরা বুক — আনমনা অগোছালো চোখ
অপলক তাকিয়ে মজি ….
তোমার হিরণ্ময়য় গালে ,
চড়ে বসি আলোর সাথে ।
গেয়ে উঠি আমি নেচে যায় সোনালী রোদ…. !
দর্শক সারিতে আমার তৃতীয় চোখ …. ।
.
তখনো লঞ্চ চলছিল তার আপন মহিমায় ।
মেঘনার বুক ছিঁড়ে…..
দু- যুগল চোখের অপলক মিলনে
হৃদ – দুটি ভিজে ছিল মনের অজান্তেই ।
.
যদি ও তোমার ঝরে ,
ঘরের ছাউনি ছুঁয়ে টুপুর টাপুর জল পরার মতন
তোমার পাপড়ি ভেজা কাজল ধুয়ে পড়ছিল গড়িয়ে গড়িয়ে ।
কামড়া জুড়ে না পাওয়ার শোকে কাতরাচ্ছিলাম তুমি আর আমি !!
.
জানো ?
ঐ দিন আমার ও ভিজে ছিল
ভেতর জুড়ে বয়ে ছিল বিষাদের ঝড় !
শুধু দৃশ্যমান ছিল না তোমার মতন ।
কিন্তু । রোদ আর মেঘনায় বহমান মৃদু বাতাস
শুকিয়ে দিয়েছিল তোমার গাল ভর্তি জল ।
.
অথচ ঃ আমার ভেতরে আদৌ রোদের সঙ্গম মেলেনি বলে …
কাঁদা মাখা হৃদের উপর দিয়ে হেঁটেই চলছি .. হেঁটেই চলছি..
তোমাকে না পাওয়ার আক্ষেপ বয়ে… ।
.
যখন চোখে চোখ রেখে বলেছিলে
আমাকেই ঘিরেই সংসারী স্বপ্ন বুনে ছিলে !
এই সময়টায় ছিল আমার চরম দুঃসময় ।
.
সেই থেকে আমি আর স্বপ্ন দেখি না
বাহ্যিক হাঁসি ছাড়া হৃদ হাঁসে না
প্রাণ ছাড়া কী আর প্রাণ বাঁচে ?
তুমিই বল ? আমি আর কেমন করে বাঁচি ?
.
তবে ! হ্যাঁ বেঁচে আছি মমি হয়ে ।
কিংবা দেয়ালে টাঙ্গানো ফ্রেমে বাধা ছবি হয়ে ….
এও বলতে পার ।
মোনালিসার পুং- লিঙ্গ হয়ে !

.
কী আশ্চর্য দ্যাখ !
তোমার আমার যাযাবর মিলন ।
যখনই তোমার আমার মাঝে
দু-জন দু- জনকে পাওয়ার বাসনা আকড়ে ধরে ছিল …
তখন ও আমার আয়োজন ছিল তোমাকে সপে দিতে অন্যের হাতে !
.
যেখানে তুমি বাঁধা ছিলে সংসার ডোরে…….. ।
.
সেই দিন হতে তোমায় না পাওয়ার অনলে
হৃদয় জ্বলে দগ্ধ লাভা খসে পড়ছে ….
যদি আবারো বিধির কোন এক আলৌক নিয়মে
লঞ্চের কামড়ায় তোমার পাশে বসে পড়ি আগের মতন ।
তখন ও যদি চোখে রাখ চোখ ।
দেখবে …
আমার হৃদ পুড়া গন্ধে অজ্ঞান হয়ে লুটিয়ে পড়বে আমার বুকে ।
যেমন চাওয়া ছিল তোমার ।
যেমন আদৌ খোঁজে ফিরি আমি ……….
.
.
গোকর্ণ ঘাট – ব্রাহ্মনবাড়িয়া ।।

Posted from WordPress for Android

x

Check Also

এই যে ম্যাডাম ? ওড়না কোথায় ?

এই যে ম্যাডাম ? ওড়না কোথায় ? মাইনুল হাসান এই যে ম্যাডাম ? ওড়না কোথায় ? বুকটা কেন খালি ? ইভটিজারে শিঁস মারিলে, তখন তো দেন গালি । চুপ বেয়াদব ! বলিস কীসব ? ঘরে ...

একুশে পদক পাচ্ছেন ২১ বিশিষ্ট ব্যক্তি

সচিবালয় প্রতিবেদক : বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৮ সালের একুশে পদক পাচ্ছেন ২১ বিশিষ্ট ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয় রাষ্ট্রীয় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এই পদকের জন্য মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করেছে। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ...

পুঠিয়ার প্রবীণ সাহিত্যিক আবদুল মজিদ মন্ডল আর নেই

পুঠিয়া প্রতিনিধি: রাজশাহীর পুঠিয়ার প্রবীণ কবি ও সাহিত্যিক আবদুল মজিদ মন্ডল আর নেই ইন্নাল্লিাহে…..রাজিউন। রবিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশাষ ত্যাগ করেন। ...

শিরোনামঃ