পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজধানী > হোমিও ও আয়ুর্বেদ চিকিৎসা আইন দ্রুত চূড়ান্ত করার নির্দেশ

হোমিও ও আয়ুর্বেদ চিকিৎসা আইন দ্রুত চূড়ান্ত করার নির্দেশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : ‘বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা পদ্ধতি আইন’ এবং ‘বাংলাদেশ ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা পদ্ধতি আইন’ দ্রুত চূড়ান্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

বুধবার সচিবালয়ে দেশীয় চিকিৎসক সমিতি, বাংলাদেশ ইউনানী আয়ুর্বেদিক বোর্ড ও বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ডের এক যৌথ সভায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের এ নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে হলে দেশীয় চিকিৎসাব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। এজন্য আইন দুটো দ্রুত প্রণয়ন করা জরুরি।

তিনি আরো বলেন, দরিদ্র মানুষের কাছে দেশীয় চিকিৎসা পদ্ধতি এখনো জনপ্রিয়। কম খরচে চিকিৎসা পায় বলে সাধারণ মানুষ এ সেবা নিতে পছন্দ করে। তবে দেশীয় চিকিৎসা পদ্ধতির মান বাড়ানোর লক্ষ্যে সংশ্লিষ্টদের আরো তৎপর হতে হবে।

দেশীয় চিকিৎসার বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, দেশের সর্বত্র হোমিওপ্যাথিক, ইউনানী বা আয়ুর্বেদিক কলেজ রয়েছে। সরকারও গুরুত্ব দিয়ে এ ধরণের চিকিৎসা পদ্ধতির মানোন্নয়নে নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে। ইতোমধ্যে সরকারি হাসপাতালে বিকল্প চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বিকল্প চিকিৎসা পদ্ধতির মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকার ভারত ও শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করার উদ্যোগ নিয়েছে। সরকারের উদ্যোগ বাস্তবায়নে হোমিওপ্যাথিক, ইউনানী এবং আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক ও শিক্ষকদের মান বাড়ানোর জন্য সংশ্লিষ্টদেরকেই উদ্যোগী হতে হবে।

দেশীয় চিকিৎসার নামে প্রতারণা বন্ধে সরকারি মনিটরিং জোরদার করার নির্দেশ দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশীয় চিকিৎসাব্যবস্থায় প্রায় সময় ভুয়া চিকিৎসকদের তৎপরতা দেখা যায়। তারা চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করে। সাধারণ মানুষ যেন প্রতারিত না হয় সে লক্ষ্যে মনিটরিং জোরদার করতে হবে। হোমিওপ্যাথিক, ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক বোর্ডগুলোর কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে কড়া মনিটরিং করবে।

তিনি দেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থার মূলধারায় দেশীয় চিকিৎসা পদ্ধতিকে সম্পৃক্ত করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

সভায় দেশীয় চিকিৎসক সমিতির কর্মকর্তারা পেশার মানোন্নয়নে কয়েকটি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন। এসব প্রস্তাব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সুপারিশ আকারে প্রতিবেদন তৈরির জন্য স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেকের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়। কমিটিতে চিকিৎসা শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিব, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ড, বাংলাদেশ ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক বোর্ডের চেয়ারম্যান সদস্য হিসাবে কাজ করবেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশ ইউনানী বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, চিকিৎসা শিক্ষা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সচিব ফয়েজ আহমেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার রায়সহ মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর ও সংশ্লিষ্ট বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

x

Check Also

গুপ্তধন উদ্ধার কাজ সাময়িক স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর মিরপুর মডেল থানা এলাকার যে বাড়িতে গুপ্তধন সন্ধানে খনন কাজ শুরু হয়েছিল তা সাময়িক স্থগিত রাখা হয়েছে। ঢাকা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ারুজ্জামান জানিয়েছেন, আগামীকাল রোববার পুনরায় অনুসন্ধান শুরু হবে। শনিবার সকাল ১০টা ...

খালেদার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে স্বজনরা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : কারান্তরীণ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে গেছেন তার পাঁচ স্বজন। শনিবার বিকেল পৌনে ৫টায় রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন কারাগারে প্রবেশ করেন তারা। স্বজনদের মধ্যে রয়েছেন- খালেদা জিয়ার বোন, ...

ভারতকে নিয়ে কাদেরের বক্তব্য প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে : ফখরুল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : আগামী নির্বাচনে ‘ভারতের কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না’ বলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যে অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে বলে মনে করছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার এই বক্তব্য আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে ...

শিরোনামঃ