পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > অপরাধ > মনোহরগঞ্জে প্রকাশ্যে কৃষক হত্যা

মনোহরগঞ্জে প্রকাশ্যে কৃষক হত্যা

অপরাধ ডেস্ক: কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে শহিদুল ইসলাম শহিদ নামের এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মো.আবদুল বাতেন (৫০) নামের এক কৃষককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার সকালে সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বিপুলাসার ইউনিয়নের বাকরা গ্রামে ওই কৃষকের বাড়ির সামনের রাস্তায় প্রকাশ্যে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। দুই ছেলে ও চার  মেয়ের জনক আবদুল বাতেন ওই গ্রামের মৃত আবদুর রহমানের ছেলে। এদিকে, এ ঘটনায় অভিযুক্ত শহিদুল ইসলাম একই গ্রামের মৃত নূর উদ্দিনের ছেলে। তিনি উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও বিপুলাসার ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সদস্য সচিব ছিলেন। তিনি সৌদি আরব রিয়াদ শাখা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জাকির হোসেনের ছোট ভাই। জাকির হোসেন গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সমর্থনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। আর ওই সময়ের পর থেকেই জাকিরের ছত্রছায়ায় থেকে শহিদ এলাকায় ভয়ংকর সন্ত্রাসী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়েন বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। পুলিশ, স্থানীয় সূত্র ও হত্যাকাণ্ডের শিকার আবদুল বাতেনের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাকরা গ্রামের খন্দকার বাড়ির আবদুল বাতেনের মেয়ে নার্গিস আক্তারের সঙ্গে একই গ্রামের মিজি বাড়ির জয়নাল আবেদীনের ছেলে শহিদুল ইসলাম স্বপনের সামাজিকভাবে বিয়ে হয় ২০১২ সালে। স্বপন হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলামের ভাগিনা। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুর বাড়ির লোকজন বিভিন্ন অজুহাতে নার্গিস আক্তারের ওপর অমানবিক নির্যাতন চালাতে থাকে। গত প্রায় দেড় মাস আগে টানা কয়েক দিন নার্গিসের ওপর নির্যানত চালায় স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। একপর্যায়ে বাধ্য হয়ে নার্গিস তার বাবাকে ঘটনাটি জানালে বাতেন গিয়ে মেয়েকে নিজ বাড়িতে আনার চেষ্টা করেন। পরে ওই সময় গ্রামের কয়েকজনকে নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন ও যুবলীগ নেতা শহিদুল ইসলাম এ ঘটনায় একটি গ্রাম্য সালিস করেন। সালিসে একতরফা রায় দিয়ে নার্গিসকে তার বাবার বাড়িতে চলে যেতে বলেন আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন। এরপর থেকেই নার্গিস তাঁর বাবার বাড়িতে বসবাস করছিলেন। তবে গতকাল শুক্রবার রাতে হঠাৎ নার্গিসকে স্বামীর বাড়িতে ফেরত নেওয়ার জন্য গ্রামের কয়েকজন লোক পাঠায় জাকির হোসেন ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন। তবে ওই লোকদের নার্গিস বলেন, ‘আপনাদের কথায় আমি যাব  না। যদি আমার শাশুড়ি আমাকে নিতে আসেন, তাহলে আমি যাব। ‘ হত্যাকাণ্ডের শিকার আবদুল বাতেনের স্ত্রী মঞ্জুয়ারা বেগম কান্না আর বিলাপ করতে করতে বলেন, “ওই লোকদের কথায় আমার মেয়ে শ্বশুর বাড়ি না যাওয়ার কারণে আজ সকালে হঠাৎ সন্ত্রাসী শহিদ আমার স্বামীকে ফোন দিয়ে বলে বাড়ির সামনে রাস্তায় আসেন এ ব্যাপারে কথা আছে। আমিও ওনার (বাতেনের) পিছু পিছু যাই। সরল বিশ্বাসে রাস্তায় গিয়ে সন্ত্রাসী শহিদের সামনে পৌঁছা মাত্রই সে আমার স্বামীর পেটে ছুরিকাঘাত করে। এতে ওনার পেট থেকে নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে গেলে সন্ত্রাসী শহিদ পালাতে থাকে। পরে আমি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে আমার স্বামীকে উদ্ধার করে   লাকসামের একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ” তিনি স্বামীর হত্যাকারীকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে ফাঁসি দেওয়ার দাবি জানান। এদিকে, গতকাল সকালে হত্যার পরপরই এলাকা থেকে পালিয়ে গেছে সন্ত্রাসী সহিদ। তার ব্যবহৃত মুঠোফোনটিও বন্ধ। গতকাল দুপুরে এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত সহিদের বড় ভাই আওয়ামী লীগ নেতা জাকির হোসেন মুঠোফোনে বলেন, পারিবারিক বিরোধ ও ঝগড়ার কারনে এ হত্যাকান্ড হয়েছে। আমিও দোষীর বিচার চাই। তবে এ ব্যাপারে আমি কোন কথা বলবো না, আর সহিদ কোথায় আছে আমি জানি না। আজ দুপুরে এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মনোহরগঞ্জ থানার ওসি  মো.সামছুজ্জামান বলেন, “খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তা কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে পারিবারিক বিরোধে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ” হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে শহিদুল ইসলাম শহিদকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।

x

Check Also

প্রশ্ন ফাঁসকারী জঙ্গিদের মতো জঘন্য : র‌্যাব প্রধান

নিজস্ব প্রতিবেদক : পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসকারীদের জঙ্গিদের মতো নিশ্চিহ্ন করা হবে। তারা জঘন্য, এক ধরনের সন্ত্রাসীও বলে মনে করেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। সোমবার দুপুরে র‌্যাব সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত ...

চারঘাটে নেশার টাকা না পেয়ে পিতা মাতাকে মারপিট ,প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা ,আহত-৫

চারঘাট প্রতিনিধি: রাজশাহীর চারঘাটে নেশার টাকা না পাওয়ায় পিতা মাতাকে মারপিট করে আহত করেছে মাদকাশক্ত যুবক মকছেদ আলী (৩০)। এ সময় প্রতিবাদ করলে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে খুন করে প্রতিবেশী মৃতঃ সাইফুল ইসলামের স্ত্রী মর্জিনা বেগম ...

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীর দাগনভূইয়া উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত যুবকের নাম ফখরুল উদ্দিন চৌধুরী (৩০)। শনিবার সকালে উপজেলার মাতুভূইয়া বাজার সংলগ্ন মাঠ থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ...

শিরোনামঃ