পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > আইন ও বিচার > জীবনযুদ্ধের ফেরিওয়ালা, বদিউজ্জামান

জীবনযুদ্ধের ফেরিওয়ালা, বদিউজ্জামান

শেখ রহমত উল্লাহ: অভাবের তারনায় শিশু কালে মা-বাবা এতিমখানায় ফেলে রেখে চলে গেছেন। তার পর ফরিদপুর এতিমখানাতেই ছিলাম ৭বছর। সেখানেও মন টিকলো না। বেড়িয়ে এলাম রাস্তায়। অনেক চেষ্টার পরো পড়া-লেখা ভাগ্যে জোটেনি। ৭বছর বয়স থেকেই জীবন যুদ্ধে নেমে পরি। বিভিন্ন বাস টার্মিনাল আর রেল স্টেশনে শিশু শিক্ষার বই বিক্রি করতে থাকি। যেখানেই রাত হতো সেখানেই বই মাথার নিচে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়তাম। ভাগ্যের পরিহাসে বই বিক্রি করতে করতে এক সময় রাজশাহীতে পৌছাই। আর রাজশাহীর কোর্ট চত্বর হয়ে ওঠে আমার উপার্জনের কেন্দ্র। তার পর থেকেই রাজশাহী আমার ঠিকানা। স্মৃতিচারণ করতে করতে আবেগভরা কন্ঠে কথা গুলো বলছিলেন বই বিক্রেতা বদিউজ্জামান।

বদিউজ্জামান রাজশাহীর আদালত পাড়ায় এখন পরিচিত একটি মুখ। প্রায় ২৫বছর ধরে তিনি ভ্রাম্যমানভাবে কোর্টে আগত ব্যক্তিদের মাঝে বই বিক্রি করে যাচ্ছেন। সকাল থেকে সন্ধ্যে পর্যন্ত কোর্ট চত্বরেই তার দেখা মেলে। ছুটির দিন ছাড়া প্রতি দিনই কোর্টের বিভিন্ন মোড়ে এক অভিনব কায়দায় বই বিক্রি করেন তিনি। কানে হেডফোন, কোমরে ওয়াকম্যান ঝুলিয়ে পুরোনো দিনের হিন্দি ও বাংলা গান বাজিয়ে বিভিন্ন দর্শক আকৃষ্ট করেন, তার পর হেড ফোনের মাধ্যমে ওয়াকম্যানে বিভিন্ন চুটকি বলে হাঁসি-তামাশার ছলে তিনি ক্রেতাদের মাঝে বিভিন্ন শিক্ষামূরক বার্তা পৌছে দেন। তার কথায় সন্তুষ্ট হয়ে অনেকেই শিশু শিক্ষার বইটি তার কাছ থেকে কিনে থাকেন। তিনি তার ব্যবসার ভিন্নতার জন্য বইয়ের পাশাপাশি সাইড ব্যাগ, মানি ব্যাগও বিক্রি করেন।

তার এ অভিনব বই বিক্রির পথ বেছে নেয়ার ব্যাপরে জানতে চাইলে বদিউজ্জামান বলেন, আমি জীবনে লেখা-পড়া শিখে আলোর মুখ দেখতে পাইনি, তাই ভবিষ্যৎ প্রজন্ম যাতে আমার মত অভাগা না হয় এজন্যই এ পথ বেছে নিয়েছি। তিনি আরো বলেন, বড় হয়ে দুই টাকা রোজগার করার পর অনেক চেষ্টা করে ছোট কালে ফেলে যাওয়া অভাবি বাবা-মা’র সন্ধান করেছি, তাদের মুখে দু মুঠো ভাত তুলে দিব বলে। কিন্ত আমি পৌছানোর আগেই তারা পরপারে পারি জমিয়েছেন। বর্তমানে আমি বৌ আর মেয়েকে নিয়ে বসবাস করছি।

বদিউজ্জামানের ব্যাপরে রাজশাহী অ্যাডবোকেট বার সমিতির আইনজীবী সহকারী আব্দুল গফুর বলেন , লোকটি অত্যান্ত নিরিহ প্রকৃতির একজন মানুষ। আমার কোর্টে আসার পর থেকেইে তাকে ফেরি করে বই বিক্রি করতে দেখছি। কারো সাথে কখনো তার মন মালিন্য হলে নিজে থেকেই তা হাঁসিমুখে সমাধান করে নেন।

x

Check Also

‘এ রায় সমাজে ভদ্রবেশী সাহেদের মতো অপরাধীদের জন্য বার্তা’

আমাদের সমাজে সাহেদের মতো অনেক ভদ্রবেশী অপরাধীর জন্য এ রায় বার্তা হিসেবে কাজ করবে। সাহেদের অস্ত্র মামলায় রায় ঘোষণার আগে দেওয়া পর্যবেক্ষণে একথা বলেছেন বিচারক। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকার এক নম্বর স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক কেএম ...

‘অনেকের কাছে গেছি বিচারের জন্য, কেউ সহযোগিতা করেনি’

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রী অভিযোগ করেছেন, মামলার আগে তিনি অনেকের কাছে বিচার চেয়েছেন, কিন্তু কেউ তাকে সাহায‌্য করেনি। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে গণমাধ্যমকর্মীদের ...

গণপিটুনিতে রেনু হত্যা: ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

রাজধানীর বাড্ডায় ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে ডিবি পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর আব্দুল হক চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন- ...

শিরোনামঃ