পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > আইন ও বিচার > গারো মা-মেয়েকে খুনের রহস্য উদঘাটন

গারো মা-মেয়েকে খুনের রহস্য উদঘাটন

নিজস্ব প্রতিবেদক : গুলশানের কালাচাঁদপুরে চাঞ্চল্যকর গারো মা-মেয়ে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী সঞ্জীব চিরানসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এ সময় হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে র‌্যাব এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায়।

রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান গণমাধ্যমকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শেরপুর জেলার নলিতাবাড়ি এলাকায় বুধবার বিকেলে বিশেষ অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন আসামি সঞ্জীব চিরান, রাজু সাংমা ওরফে রাসেল, প্রবীণ সাংমা ও শুভ চিসিম ওরফে শান্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার সকালে আব্দুল্লাহপুরের নালিতাবাড়ি বাস কাউন্টারের পেছন থেকে হত্যায় ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, এক মাস আগে সঞ্জীব, শান্ত ও প্রবীণ- এই তিন বন্ধু মিলে শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বসে পরিকল্পনা করে ঢাকায় সঞ্জীবের খালা সুজাতা বেসেত-এর বাসায় এসে টাকা চুরি করে আসন্ন ‘স্টার সানডে’ উদযাপন করবে। পরিকল্পনা মাফিক ১৯ মার্চ তিনজন ঢাকায় কুড়িলে তাদের বন্ধু রাজুর কাছে আসে। পরদিন রাজুকে তারা পরিকল্পনার কথা জানায়। রাজু সব সময় একটি ধারালো অস্ত্র (ছোরা) বহন করত বলে সঞ্জীব জানিয়েছে। রাজু ও প্রবীণ ঘটনার দিন সকাল ৯টার দিকে সুজাতা বেসেতের বাসায় যায়। ভেতরে সুজাতা বেসেত এবং সুজাতার মেয়ে মায়াবীকে দেখে ফিরে এসে নিচে সঞ্জীব ও শান্তকে জানায়। একইদিন বিকেল ৩টায় শান্ত, রাজু ও প্রবীণকে নিয়ে সঞ্জীব আবার সুজাতা বেসেতের বাসায় যায়। সুজাতা বেসেত তাদেরকে চা-বিস্কুট দিয়ে আপ্যায়ন করে। এক পর্যায়ে সুজাতাকে ২০০ টাকা দিয়ে দেশীয় মদ ‘চু’ আনতে বলে সঞ্জীব। সুজাতা দেশীয় মদ আনলে সবাই মিলে পান করে এবং আসামিরা সুজাতাকে বেশি মদ খাইয়ে নেশাগ্রস্ত করে ফেলে। বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে সঞ্জীব ও অন্য আসামিরা পরিকল্পনা মাফিক সুজাতা ও তার মেয়ে মায়াবীকে হত্যা করে বেরিয়ে যায়।

x

Check Also

‘এ রায় সমাজে ভদ্রবেশী সাহেদের মতো অপরাধীদের জন্য বার্তা’

আমাদের সমাজে সাহেদের মতো অনেক ভদ্রবেশী অপরাধীর জন্য এ রায় বার্তা হিসেবে কাজ করবে। সাহেদের অস্ত্র মামলায় রায় ঘোষণার আগে দেওয়া পর্যবেক্ষণে একথা বলেছেন বিচারক। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকার এক নম্বর স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক কেএম ...

‘অনেকের কাছে গেছি বিচারের জন্য, কেউ সহযোগিতা করেনি’

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রী অভিযোগ করেছেন, মামলার আগে তিনি অনেকের কাছে বিচার চেয়েছেন, কিন্তু কেউ তাকে সাহায‌্য করেনি। শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে গণমাধ্যমকর্মীদের ...

গণপিটুনিতে রেনু হত্যা: ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

রাজধানীর বাড্ডায় ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যা মামলায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে ডিবি পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর আব্দুল হক চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন- ...

শিরোনামঃ