পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > জিএসপি সুবিধা বহাল রাখতে সহায়তা দেবে জার্মানি

জিএসপি সুবিধা বহাল রাখতে সহায়তা দেবে জার্মানি

বিশেষ প্রতিবেদক : জিএসপি সুবিধা বহাল রাখতে জার্মানি সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। পাশাপাশি দেশটি বাংলাদেশে ব্যয়বহুল গাড়ি বিএমডব্লিউ এবং মার্সিডিজ বেঞ্জ তৈরির কারখানা স্থাপনের ইচ্ছের কথা জানিয়েছে।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অর্থমন্ত্রীর কার্যালয়ে ঢাকায় সফররত জার্মানির একটি প্রতিনিধিদল অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন ঢাকায় নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেনহোল্টজ। ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে জার্মানির উচ্চপর্যায়ের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলটি পাঁচ দিন ঢাকায় অবস্থান করবে।

অ্যাসোসিয়েশন অব জার্মান চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিকে সঙ্গে নিয়ে জার্মান এশিয়া-প্যাসিফিক বিজনেস অ্যাসোসিয়েশন জার্মান ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের এ সফরের আয়োজন করেছে। এই দলে বস্ত্র, আসবাবপত্র, জাহাজ থেকে শুরু করে পরিবেশ-প্রযুক্তি, ব্যাংকিং ও পর্যটন খাতের প্রতিনিধিরা রয়েছেন।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি বাংলাদেশে তৈরির প্রস্তাব দিয়েছে জার্মানি। জার্মানি থাইল্যান্ডে যেভাবে প্রগতিশীল উৎপাদন ব্যবস্থার মাধ্যমে অ্যাসেম্বল করে, সেভাবেই এখানেও করবে। অর্থাৎ তারা বিএমডব্লিউ ও মার্সিডিজ বেঞ্জের কিছু পার্টস এখানেই তৈরি করবে এবং কিছু পার্টস বিদেশ থেকে নিয়ে আসবে। পরে এটা এখানে অ্যাসেম্বল করবে। বিষয়টি নিয়ে তারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবে এবং সে আলোচনার পরে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, এটি একটি খুবই উত্তম প্রস্তাব কেননা তাহলে আর আমাদেরকে ব্যয়বহুল গাড়ি আমদানি করতে হবে না। আরেকটি অত্যন্ত ভালো প্রস্তাব তারা দিয়েছে। তা হচ্ছে, তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে আমাদের জিএসপি সুবিধা যেন বাতিল হয়ে না যায় এ বিষয়ে তারা সর্বোতভাবে আমাদের সহায়তা করবে।

তিনি বলেন, জার্মানের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অত্যন্ত সুপ্রাচীন, অনেক আগেই থেকেই তারা আমাদের দেশে বিনিয়োগ করে আসছে। এই মুহূর্তে তারা আমাদেরকে প্রস্তাব দিচ্ছেন যে, তারা বড় আকারে আমাদের পাট শিল্পকে ব্যবহার করতে চান। আমাদের এক সময়ের প্রধান রপ্তানি আয়ের সোনালী আশ পাট শিল্প ব্যবস্থাপনা করা আমাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়েছে, তাই এটা খুব ভাল প্রস্তাব। আর মার্সিটিজের ভেতরে পাটের অনেক ব্যবহার রয়েছে। জার্মানির যত গাড়ি আছে, প্রায় সব গাড়ির ভেতরে পাটের অনেক ব্যবহার হয়ে থাকে।

x

Check Also

রাজধানীর ৪ ক্যাসিনো সিলগালা, ১৮২ জনের দণ্ড

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় চারটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়েছে র‍্যাব। বুধবার বিকেল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এসব ক্যাসিনোতে পৃথক অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে মোট ১৮২ জনকে আটকের পর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়া জব্দ ...

স্পর্শকাতর খবর পরিবেশনে সতর্কতার আহ্বান

কূটনৈতিক প্রতিবেদক : বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বুধবার মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে প্রকাশিত খবরকে বিভ্রান্তিকর ও অনভিপ্রেত বলে এতে উল্লেখ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে ...

অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের সতর্ক থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রীর

‌জ্যেষ্ঠ প্র‌তি‌বেদক : সব ধরনের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী সম্প্রদায়কে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। তি‌নি ব‌লেন, সরকারের বিরুদ্ধে যে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে তা মূলত দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যেরই ক্ষতি সাধন করছে। বুধবার রাজধানীর তেজগাঁওয়ে তার ...

শিরোনামঃ