পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > বিনোদনপ্রেমীদের ঠিকানা লালবাগ কেল্লা

বিনোদনপ্রেমীদের ঠিকানা লালবাগ কেল্লা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মোঘল আমলের ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্য লালবাগ কেল্লা। এ ঐতিহ্যবাহী কেল্লা বিনোদনপ্রেমীদের কাছে সব সময়ই প্রিয়। তাই ঈদুল আজহার দিন দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর ছিল লালবাগ কেল্লা। শনিবার দুপুরের পর এখানে বিনোদনপ্রেমীদের ঢল নামে।

শনিবার বিকেলে লালবাগ কেল্লায় গিয়ে দেখা যায়, কাউন্টারগুলোর সামেনে দাঁড়িয়ে আছে শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে সব বয়সি মানুষ।

লালবাগ কেল্লার সৌন্দর্য উপভোগ করতে দুই মেয়েকে নিয়ে এসেছেন রাজধানীর মালিবাগের শহীদবাগের সুরাইয়া বেগম। তিনি বলেন, ‘পুরনো অনেক কিছু দেখছি, যা পাঠ্যপুস্তকে পড়েছি। আজ মেয়েদের এগুলো দেখাতে নিয়ে এসেছি।’

ইসলামপুরের হযরত আলী বলেন, ‘সময় পাই না, এ কারণে পরিবার নিয়ে ঘোরাও হয় না। ঈদ আসলেই সপরিবারে বেড়াতে আসি কেল্লায়। কেল্লায় না আসলে মনেই হয় না ঘোরা হয়েছে। খুব ভালো লাগছে।’

মায়ের হাত ধরে আসা ছোট্ট ইতি মণি বলে, ‘আঙ্কেল, অনেক কিছু দেখেছি। আমরা প্রতিবারই এখানে আসি।’

লালবাগ কেল্লায় মোঘল আমলের কষ্টি পাথর, মার্বেল পাথরসহ বিভিন্ন রঙের টালি ও বিভিন্ন রঙের ফুল ও অভ্যন্তরীণ নয়টি অলঙ্কৃত কক্ষ দেখলে অনেক কিছু জানা যায় বলে জানান দর্শনার্থীরা।

লালবাগ কেল্লায় দায়িত্বরা বলেন, শনিবার দুপুরের পর থেকে দর্শনার্থীরা আসছেন। বিকেলে বা পরের দিনগুলোতে এ সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে। এখানে শায়েস্তা খানের আমলের পোশাক-পরিচ্ছদ, মোঘল আমলে যুদ্ধে ব্যবহৃত অস্ত্র, গোলাবারুদ, পরী বিবির মাজার রয়েছে। এসব দেখলে যে কারো মনে ভরে যায়। রোববার ছাড়া প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে স্থানটি দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

লালবাগ কেল্লার তত্ত্বাবধায়ক মো. মশিউর রহমান বকুল বলেন, ‘দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ভেতরে ও বাইরে বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

লালবাগ কেল্লার সৌন্দর্যহানি না করতে দর্শনার্থীদের প্রতি অনুরোধ জানান মশিউর রহমান বকুল।

x

Check Also

স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে ঈদের নামাজ পড়ার আহ্বান

করোনাভাইরাসের কারণে সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সরকারের স্বাস্থবিধি মেনে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সুস্থ মুসল্লিদের খোলা জায়গার পরিবর্তে মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায়ের অনুরোধ জানিয়েছেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ। দেশবাসীকে আগাম ইদুল ফিতরের শুভেচ্ছা ...

করোনায় প্রাণ গেলো আরও ২৮ জনের, আক্রান্ত ১৫৩২

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে আরও ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪৮০ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১ হাজার ৫৩২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে ...

করোনার ঝুঁকি নিয়েই শেষ মুহূর্তে রাজধানী ছাড়ছে মানুষ

রাত পোহালেই ঈদুল ফিতর। পরিবারের সদস্য ও স্বজনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকি সত্বেও রাজধানী ছেড়ে গ্রামের বাড়িতে ফিরছেন অনেক মানুষ। করোনাভাইরাস ঠেকাতে প্রায় দুই মাস ধরে বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন। তাই অনেকের ...

শিরোনামঃ