পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > নির্বাচনের জয়ের প্রত্যাশা ফখরুলের

নির্বাচনের জয়ের প্রত্যাশা ফখরুলের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : ধানের শীষের পক্ষে মানুষের ব্যাপক সমর্থন তৈরি হয়েছে, এ দাবি করে নির্বাচনে জয়ের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে পেশাজীবীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। রাজনীতির ব্যাপারে তাদের কোনো চিন্তা নাই, জনগণের ইচ্ছা-অনিচ্ছার ওপরে তাদের কোনো চিন্তা নাই। রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য তারা সব চেষ্টা করছে।’

তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে, মানুষকে জাগিয়ে তোলা। এই রাষ্ট্র জনগণের, প্রতিরোধ তাদেরকেই করতে হবে। এই ধরনের ষড়যন্ত্র-চক্রান্তকে ব্যর্থ করতে হব জনগণকে। মানুষের চোখের যে ভাষা আমরা দেখেছি, মানুষের মধ্যে যে আকুতি আমরা দেখেছি, তাতে এই নির্বাচনে অবশ্যই আমরা জয়ী হব, ইনশাল্লাহ।’

বিএনপির মহাসচিব অভিযোগ করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সংলাপে সকলের সামনে কথা দিয়েছিলেন যে, তফসিল ঘোষণার পর থেকে আর গ্রেপ্তার হবে না। একটা কথাও তার সরকার রাখেনি বা তিনি রাখতে দেননি। গ্রেপ্তার চলছেই। আমাদের সংসদ সদস্য প্রার্থী যারা, এখন পর্যন্ত ১৪ জন কারাগারে। প্রতিদিন আমাদের ২০০ থেকে ৩০০ জন গ্রেপ্তার হচ্ছে।’

‘হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়েছে, জামিন নিয়ে বেরুবে, হাইকোর্টের গেটে আবার গ্রেপ্তার করেছে। আবার নতুন মামলা দিয়ে জেলে ঢোকাচ্ছে। অত্যাচার-নির্যাতনের শেষ নেই। এখন নতুন করে শুরু হয়েছে- আমাদের প্রার্থিতা বাতিল। সেটা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে, জানি না,’ বলেন মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘আপনারা যদি দেখেন নির্যাতন-নিপীড়ন-গ্রেপ্তারের ঘটনা, কল্পনা করতে পারবেন না যে, আমরা এখনো টিকে আছি কী করে মাঠে। আমরা টিকে আছি শুধু একটি কারণে, সেটা হচ্ছে মানুষের সমর্থন। যেখানেই আমরা গেছি, আমাদের জন্য মানুষ বেরিয়ে আসছে।’

‘গতকাল আমরা কুমিল্লা গিয়েছিলাম। যে আসনটিতে (কুমিল্লা-১০) বক্তব্য রেখেছি, সেখানকার প্রার্থী মনিরুল হক চৌধুরী জেলে। আমাদের সেখানে বিকল্প প্রার্থী আবদুল গফুর ভুঁইয়া ও মোবাশ্বের আলী ভুঁইয়া সাহেব তারাও জেলে। তারপরেও লক্ষ মানুষ সভায়। চান্দিনায় গেছি, বগুড়ায় গেছি, সেখানে মানুষের ঢল দেখেছি। জনগণের এই শক্তির ওপর ভিত্তি করেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।’

ভুয়া ব্যালট পেপার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ‘সরকারের আরেকটি অপকর্মের আগাম ঘোষণা’ বলে মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব।

তিনি বলেন, ‘আপনারা প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে প্রায় খেয়াল করবেন, যেটা উনি করবেন, সেটা আগে বলে দেন। চোরাই ব্যালট ছাপানো, ব্যালট তো ছাপাবেন আপনারা। কারণ, ব্যালট ছাপানোর অধিকার আপনাদের। আর ছাপানো হয়েও গেছে। এই কথা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করে আরেকটা অপকর্ম করবার যে একটা আগাম ঘোষণা দিয়েছেন, সেজন্য আপনাকে (প্রধানমন্ত্রী) ধন্যবাদ।’

নির্বাচন কমিশনকে ‘ঠুটো জগন্নাথ’ অভিহিত করে সুষ্ঠু ভোটের জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচন কমিশন একটা ঠুটো জগন্নাথ। তাদের কোনো ক্ষমতা নেই। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন, আ স ম আবদুর রব, কাদের সিদ্দিকীসহ আমরা সেখানে গেছি, আড়াই ঘণ্টা কথা বলেছি। তারা চুপ করে থাকেন, কোনো উত্তরই দেন না। মনে হয় যে, অসহায়- এই ধরনের মনে হয়। যাই হোক, তারা কিছু করতে পারেননি। তাদের ক্ষমতা আছে বলে মনে হয় না।’

একাদশ সংসদ নির্বাচনের গুরুত্ব তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচনের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত হবে, আমরা কী গণতন্ত্রে থাকব, না পুরোপুরিভাবে একনায়কতন্ত্র-স্বৈরতন্ত্রের মধ্যে চলে যাব। আমরা কি আমাদের স্বাধীনতার যে চেতনা ছিল- গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থা, সেটাকে কি আমরা রক্ষা করতে পারব, না কি স্বৈরতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থায় চলে যাব। আমাদের বাকস্বাধীনতা, আমাদের সংগঠনের যে স্বাধীনতা এবং সংবিধানের যে মূল বিষয়গুলো আছে, সেগুলোকে রাখতে পারব কি পারব না।’

সভায় অন্যদের মধ্যে রুহুল আমিন গাজী, শওকত মাহমুদ, মাহফুজুল্লাহ, অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন, অধ্যাপক এ কে এম আজিজুল হক, অধ্যাপক সদরুল আমিন, অধ্যাপক আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, অধ্যাপক তাজমেরী ইসলাম, অধ্যাপক বোরহান উদ্দিন, প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজু, অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়াসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

x

Check Also

প্রধানমন্ত্রীকে আ.লীগের অভিনন্দন

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিশুদের টিকাদান কর্মসূচিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার মর্যাদাপূর্ণ ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পুরস্কার প্রাপ্তিতে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন তার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে দলের সাধারণ সম্পাদক ...

শুদ্ধি অভিযান শুরুর পর থেকে একজনের নাম সব সময় আসছে

এ অভিযান শুরু করার পর একজনের নাম সব সময় আসছে। তিনি হলেন যুবলীগ নেতা সম্রাট। এছাড়া আওয়ামী লীগসহ যেসব পুলিশ কর্মকর্তা এবং ইঞ্জিনিয়ারদের নাম আসছে তাদের বিষয়ে তো কোনো দৃশ্যমান অ্যাকশন হচ্ছে না-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের ...

‘শামীম আওয়ামী লীগের কেউ নন’

আওয়ামী লীগের কোনো কমিটিতে অস্তিত্ব নেই জিকে শামীমের। গণমাধ্যমে কখনো যুবলীগ, কখনো আওয়ামী লীগের নেতা বলে শামীমের রাজনৈতিক পরিচয় লেখার আগে তথ্য যাচাইয়ের আহ্বান জানিয়েছে দলটি। শুক্রবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে আটক হন জিকে শামীম। ...

শিরোনামঃ