পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > ঢাবিতে ছাত্রলীগের দু-গ্রুপের সংঘর্ষ, তদন্ত কমিটি গঠন

ঢাবিতে ছাত্রলীগের দু-গ্রুপের সংঘর্ষ, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্ষ দখলকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্য সেন হলে ছাত্রলীগের দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে হল প্রশাসন।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের ওই হল শাখার অনুসারী নেতা-কর্মীদের মধ্যে মঙ্গলবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে এ সংঘর্ষ হয়।

হলের প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গতকাল মধ্যরাতে সূর্য সেন হলের ২০৭ নম্বর কক্ষটি নিয়ে দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। কক্ষটি এত দিন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হকের অনুসারীদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। ওই কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের হল শাখার অনুসারীরা তাদের কর্মীদের ওঠানোর চেষ্টা করলে এ নিয়ে দুই পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়। পরে সাদ্দাম হোসেনের অনুসারীরা হলের অতিথিকক্ষে আর রেজওয়ানুল হকের অনুসারীরা দোকানের সামনে জড়ো হন। জড়ো হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ শুরু হয়। উভয়পক্ষের নেতা-কর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে পরস্পরের ওপর চড়াও হন। আধা ঘণ্টা ধরে এই সংঘর্ষ চলে। পরে রেজওয়ানুল হক ও সাদ্দাম হোসেনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

সূর্যসেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ঘটনার বিষয়ে আমি অবগত। ঘটনার তদন্তে হলের আবাসিক শিক্ষক মোহাম্মদ বাহাউদ্দিনকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি কমিটি করে দিয়েছি। প্রতিবেদন দেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, সংঘর্ষের এই ঘটনায় গ্রুপিংয়ের কোনো ব্যাপার নেই। সূর্য সেন হলে মাদকসেবী ও ছিনতাইকারীদের একটা সংঘবদ্ধ অশুভ চক্র আছে। তারা হলের পরিবেশ অশান্ত করার জন্য রুম দখলের পাঁয়তারা করছিল। হল শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মীরা এ ব্যাপারে সতর্কতামূলক অবস্থান নিয়েছে। আমরা চাই, হলের পরিবেশ শান্তিপূর্ণ থাক। ঘটনার তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

x

Check Also

প্রধানমন্ত্রীকে আ.লীগের অভিনন্দন

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শিশুদের টিকাদান কর্মসূচিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার মর্যাদাপূর্ণ ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পুরস্কার প্রাপ্তিতে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়েছেন তার দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে দলের সাধারণ সম্পাদক ...

শুদ্ধি অভিযান শুরুর পর থেকে একজনের নাম সব সময় আসছে

এ অভিযান শুরু করার পর একজনের নাম সব সময় আসছে। তিনি হলেন যুবলীগ নেতা সম্রাট। এছাড়া আওয়ামী লীগসহ যেসব পুলিশ কর্মকর্তা এবং ইঞ্জিনিয়ারদের নাম আসছে তাদের বিষয়ে তো কোনো দৃশ্যমান অ্যাকশন হচ্ছে না-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের ...

‘শামীম আওয়ামী লীগের কেউ নন’

আওয়ামী লীগের কোনো কমিটিতে অস্তিত্ব নেই জিকে শামীমের। গণমাধ্যমে কখনো যুবলীগ, কখনো আওয়ামী লীগের নেতা বলে শামীমের রাজনৈতিক পরিচয় লেখার আগে তথ্য যাচাইয়ের আহ্বান জানিয়েছে দলটি। শুক্রবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে আটক হন জিকে শামীম। ...

শিরোনামঃ