পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আ.লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম

মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আ.লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেমের কাছে তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। দেশের প্রথম সারির স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে তিনি এই মনোনয়নপত্র জমা দেন।

মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের মনোনয়নপত্রে প্রস্তাবক পাঁচ জন হলেন, প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি আতিকুল ইসলামের বড় ভাই তাফাজ্জাল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য এ কে এম রহমাতুল্লাহ, জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিন ও এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

অন্যদিকে, আতিকুলের মনোনয়নপত্র সমর্থনকারীরা হলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, সিনিয়র সাংবাদিক দৈনিক জাগরণের সম্পাদক আবেদ খান, আতিকুল ইসলামের সহধর্মিণী ডাক্তার শায়লা সগুফতা ইসলাম ও প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের ছেলে নাভিদুল হক।

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমি আচরণবিধি মেনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। আচরণবিধি যেন লঙ্ঘন না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে বেশি নেতাকর্মী নিয়ে আসিনি।

এসময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের অসমাপ্ত কাজ শেষ করার প্রত্যয় পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি।

ঢাকা জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আজ পর্যন্ত ২৫ জন মেয়র প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে ১৯ জন আগের তফসিলের সময়ই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন, বাকি ছয় জন নতুন করে তফসিল ঘোষণার পর মনোনয়নপত্র নিয়েছেন। এর মধ্যে কেবল একজনই জমা দিয়েছেন।’

আবুল কাসেম বলেন, মনোনয়নপত্র জমা দিতে আসার সময় পাঁচ জনের বেশি লোক না নিয়ে আসার জন্য আমরা অনুরোধ করেছি। এ অনুরোধে সাড়া দিয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম পাঁচ জন নিয়েই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাই।’

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় আতিকুল ইসলামের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর ফরাসউদ্দিন আহমেদ, এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, ঢাকা মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি নিহাদ কবির, বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান ও অন্যরা। তবে এসময় তার সঙ্গে আওয়ামী লীগের কোনো নেতাকর্মীকে দেখা যায়নি।

x

Check Also

স্বপ্নের রংপুর গড়তে চান সাদ এরশাদ

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আদলে স্বপ্নের রংপুর গড়তে চান তারই ছেলে নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য রাহগির আলমাহি সাদ এরশাদ। সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে রাইজিংবিডিকে তিনি এ কথা জানান। সাদ ...

বিএনপি নেতা হাফিজ উদ্দিন আহমদ আটক

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর অব. হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রমকে হযরত শাহ্ জালাল বিমান বন্দর থেকে আটক করা হয়েছে। শনিবার রাতে বিদেশ থেকে ফেরার পর তাঁকে আটক হয় বলে জানা গেছে। বিমানবন্দর থানার অফিসার ইন চার্জ নুরে ...

আবরার হত্যা: ১১ ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের সাথে ১১ জনের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে তাদের ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। সোমবার রাতে ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আল-নাহিয়ান খান এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা যে তদন্ত ...

শিরোনামঃ