পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > এরশাদ জীবিত না মৃত?

এরশাদ জীবিত না মৃত?

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :

সিএমএইচে চিকিৎসাধীন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন।

ক্রমে তার অবস্থার অবনতি ঘটছে। এরমধ্যে এরশাদের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নেতা-কর্মীরাও উদ্বিগ্ন। এমন প্রেক্ষাপটে এরশাদের বিষয়ে জানাতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন তার ছোটভাই জিএম কাদের।

সোমবার দুপুর ১টায় এরশাদের বনানী অফিসে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সংবাদ সম্মেলন করবেন।

সূত্র জানিয়েছে, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। সিএমএইচে এতদিন যারা ছিলেন, এরশাদের স্টাফদের মুখে এ নিয়ে কোন কথা নেই। তারা বলছেন, কিছুই বলতে পারব না। আমরা এখন সেখানে যেতে পারছি না। সিএমএইচ কর্তৃপক্ষই ভালো জানে। তবে অধিকাংশ নেতাই বলেছেন, বিষয়টি গুজব ছাড়া আর কিছু নয়। বিভ্রান্তির জন্যই গুজব ছড়ানো হচ্ছে। আসলে এরশাদের অবস্থা কী দুপুর ১টায় জিএম কাদেরের সংবাদ সম্মেলনে জানা যাবে, ধারণা নেতা-কর্মীদের।

একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, সিএমএইচে চিকিৎসাধীন এরশাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক এবং অক্সিজেন দিয়ে তাকে রাখা হয়েছে। হয়তো একথাটিই বলতে পারেন জিএম কাদের। দেখা যাক, এরশাদের বিষয়ে জিএম কাদের কী বলেন।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এরশাদকে দেখতে সিএমএইচে যান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এসময় সিএমএইচের বাইরে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটনসহ নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

এর আগে সিএমএইচে এরশাদকে দেখতে যান রওশন এরশাদ ও ছোটভাই জাপার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

সোমবার সকালে এরশাদের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা বলেছেন, এরশাদ জীবিত আছেন কি না কিছুই বলতে পারছি না। তার শারীরিক অবস্থা ঠিক নেই বলে মনে হচ্ছে।

এরশাদের অসুস্থ্যতা, চিকিৎসা ব্যবস্থা, শারীরিক পরিস্থিতিসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে রোববার সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে সংবাদ সম্মেলন করে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছিলেন, এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে। অক্সিজেনে তাকে রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে তাকে বিদেশ নেওয়া হবে।

রোববার দুপুরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। শ্বাস প্রশ্বাস নিতে কষ্ট হলে তাকে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়। দ্রুত তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। রাতে একপর্যায়ে তার মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এসময় তার ছোটভাই জিএম কাদেরসহ শীর্ষনেতারা সাংবাদিকদের এড়িয়ে চলেন। এ বিষয়ে বলার মত দায়িত্বশীল কাউকে পাওয়া যায়নি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এরশাদের খবর জানতে চায় সবাই। দলের নেতাদের অনেকেই একে গুজব বলে উড়িয়ে দেন। তবে ভোররাত থেকেই নেতাদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এসময় তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তখন তার রক্তে হিমোগ্লোবিন ঘাটতির কথা জানান চিকিৎসকরা। পরে সিঙ্গাপুরে গিয়ে চিকিৎসা করিয়ে আসেন এরশাদ। তাতেও পুরোপুরি সেরে ওঠেননি।  সিঙ্গাপুর থেকে এসে তিনি হইল চেয়ারে চলাফেরা করছিলেন। অসুস্থতার জন্য এরশাদ তার দলের কোনো রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডেও যোগ দিতে পারেননি।

x

Check Also

মন্ত্রিসভায় বড় পরিবর্তনের আভাস কাদেরের

শিগগিরই আর পরিবর্তন না হলেও, আগামীতে মন্ত্রিসভায় বড় ধরনের পরিবর্তনের আভাস দিয়েছেন সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় নতুন করে মেজর কোনো পরিবর্তন বা সম্প্রসারণ এই মুহূর্তে হবে না, পরে ...

কামালকে ‘ঐক্যরক্ষা’য় মনোযোগী হতে তথ্যমন্ত্রীর পরামর্শ

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনের সরকারকে হটাতে যে বক্তব্য রেখেছেন, সেটি তার ব্যক্তিত্বের সাথে সাংঘর্ষিক বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। রোববার কাকরাইলে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পিআইবি) সেমিনার হলে এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ...

সাংগঠনিক অভিযানে নামছে আ.লীগ

দলের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের আগে শুরু হওয়ার সাংগঠনিক প্রক্রিয়ার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। তৃনমূলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিগুলো দ্রুত শেষ করার পাশাপাশি সহযোগী সংগঠনগুলোর পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিতে এরই মধ্যে নির্দেশনা ...

শিরোনামঃ