পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > দাবি মেনেছে প্রশাসন, মনীষার অনশনসঙ্গীদের বিজয়মিছিল

দাবি মেনেছে প্রশাসন, মনীষার অনশনসঙ্গীদের বিজয়মিছিল

বরিশাল নগরে ব‌্যাটারিচালিত রিকশা চলতে দেয়ার দাবি মেনে নিয়েছে জেলার পুলিশ প্রশাসন। এর পরপরই ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তীর নেতৃত্বে বিজয় মিছিল করেছে চালকরা।

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদের জেলা কমিটির আহ্বায়ক ইমরান হাবিব রুমন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ‌্যার পর সেখানকার বিশিষ্ট ব‌্যক্তিদের মধ‌্যস্থতায় সমঝোতা হয় পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে। ব‌্যাটারিচালিত রিকশা চলতে দেয়ার ছাড়াও জব্দ করা রিকশার মালামাল ফেরত দেয়ার দাবি মেনে নেয় পুলিশ।

এদিকে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিশিষ্ট ব‌্যক্তিরা সমঝোতার পর বরিশালের অশ্বীনি কুমার হলের সামনে অবস্থানকারী অনশনকারীদের অনশন ভাঙ্গান।

তবে অনশনের দ্বিতীয় দিনে সন্ধ‌্যার আগেই বেশ কয়েকজন অনশনকারী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের মধ‌্যে কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে। সন্ধ‌্যার পর কর্মসূচি শেষে ডা. মনীষা অসুস্থ সহযোদ্ধাদের চিকিৎসার তদারকিতে ব‌্যস্ত ছিলেন।

তবে বাসদের জেলা কমিটির সদস‌্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী নিজে সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন বাসদের জেলা আহ্বায়ক ইমরান হাবিব রুমন।

বুধবার সকাল থেকে বাসদের ডা. মনীষা নেতৃত্বে ব‌্যাটারিচালিত রিকশা উচ্ছেদের প্রতিবাদে চালকরা অনশন শুরু করেন। জানা যায়, গত ১৯ আগস্ট থেকে কোনো ধরনের ঘোষণা ছাড়াই বরিশাল শহরে দফায় দফায় ব্যাটারিচালিত রিকশা উচ্ছেদের নামে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান চালানো হয়। দুই মাসব্যাপী এই অভিযানে পাঁচ শতাধিক ব্যাটারিচালিত রিকশা আটক করা হয়। প্রতিটি গাড়ির ব্যাটারি, মোটর খুলে নিয়ে যাওয়া হয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ২ কোটি টাকা বলে দাবি চালকপক্ষের। তারা আরো দাবি করে, এই বিপুল অর্থনৈতিক ক্ষতির পাশাপাশি দরিদ্র রিকশাচালকরা শিকার হয়েছেন আর্থিক হয়রানি ও নির্যাতনের।

প্রসঙ্গত বাসদের নেতা ডা. মনীষা এমবিবিএস পাশ করে বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়েও সরকারি চাকরিতে যোগ দেননি। বিগত বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বাসদের প্রার্থী হয়ে ব‌্যাপক সাড়া ফেলেন সারাদেশে। এবার কর্মসূচি দেয়ার পরও আন্দোলনের শেষ অবস্থা জানতে নিয়মিত খোঁজ-খবর নিতে থাকেন বিভিন্ন অঙ্গনের মানুষ।

x

Check Also

শুদ্ধি অভিযান শুরুর পর থেকে একজনের নাম সব সময় আসছে

এ অভিযান শুরু করার পর একজনের নাম সব সময় আসছে। তিনি হলেন যুবলীগ নেতা সম্রাট। এছাড়া আওয়ামী লীগসহ যেসব পুলিশ কর্মকর্তা এবং ইঞ্জিনিয়ারদের নাম আসছে তাদের বিষয়ে তো কোনো দৃশ্যমান অ্যাকশন হচ্ছে না-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের ...

‘শামীম আওয়ামী লীগের কেউ নন’

আওয়ামী লীগের কোনো কমিটিতে অস্তিত্ব নেই জিকে শামীমের। গণমাধ্যমে কখনো যুবলীগ, কখনো আওয়ামী লীগের নেতা বলে শামীমের রাজনৈতিক পরিচয় লেখার আগে তথ্য যাচাইয়ের আহ্বান জানিয়েছে দলটি। শুক্রবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে আটক হন জিকে শামীম। ...

ভেঙে যাচ্ছে যুবলীগের মহানগর কমিটি!

অব্যাহত অভিযোগ আর সামালোচনার মুখে থাকা যুবলীগের ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কমিটি ভেঙে দেয়া হচ্ছে। চার বছর আগে এই কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে, নতুন কমিটির গঠনের নির্দেশ থাকলেও অদৃশ্য কারণে তা বাস্তবায়ন হয়নি। সম্প্রতি ...

শিরোনামঃ