পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > অপপ্রচার ঠেকাতে কৌশলী হচ্ছে আ.লীগ

অপপ্রচার ঠেকাতে কৌশলী হচ্ছে আ.লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার ও দলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপপ্রচার ঠেকাতে আওয়ামী লীগ কৌশল নির্ধারণ করছে বলে জানিয়েছেন দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং উপ-কমিটির সদস্য সচিব ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ের পার্শ্ববর্তী নির্বাচনী অফিসে উপ-কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে আমরা সিরিজ সেমিনার করব। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার জন্মদিন। আমরা তার জীবন, সংগ্রাম ও অর্জন নিয়ে একটি সেমিনার করার পাশাপাশি একটি তথ্যচিত্র বের করব। এ ছাড়া সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড এবং অগ্রগতি নিয়ে কয়েকটি বিষয়ের ওপর সেমিনার করব।

তিনি আরো বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন খুব বেশি দূরে নয়। আগামী বছরের জানুয়ারিতে সরকারের চার বছর পূর্ণ হবে। সে কারণে আমাদেরকে এখনই প্ল্যানগুলো করতে হচ্ছে। আওয়ামী লীগ সরকাররের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ডিজিটাল হয়েছে। তাই আগামী নির্বাচনে ডিজিটাল প্রচারটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হবে। এ লক্ষ্যে একটি সাব-কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এই সাব-কমিটিতে গাউসুল আলম শাওন, মু. আশরাফ সিদ্দিকী বিটু, জগদীশ এষ, তন্ময় আহম্মেদ, সুব্রতসহ মোট ছয়জন আছেন বলে জানান ড. হাছান মাহমুদ।

আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে, এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে, দলের নেতাদের বিরুদ্ধে, সরকারের বিরুদ্ধে অনেক বিরুপ প্রচারণা হচ্ছে। লন্ডন থেকে একটি গোষ্ঠী ও বিএনপি-জামায়াত দেশের বাইরে ও দেশের ভেতর থেকে এগুলো করছে। বিরুপ প্রচারণা মোকাবিলা করার বিষয়ে আলোচনা করেছি।

ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে বিএনপির বিভিন্ন প্রতিক্রিয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, এই রায় নিয়ে আইনমন্ত্রী আগামীকাল সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন। সেখানে তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত বলবেন। যেকোনো রায়ের সমালোচনা হতে পারে। যদি বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ড নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের সমালোচনা হয়, গণমাধ্যমে সমালোচনামূলক নিবন্ধ লেখা যায়, যুদ্ধাপরাধীদের রায়ের পর রায় মানি না বলে দেশে হরতাল হয়, তাহলে এই রায়েরও সমালোচনা হতে পারে। রায় নিয়ে সমালোচনা করার অধিকার জনগণের আছে। অতীতেও রায় নিয়ে সমালোচনা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিএনপির প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, পঞ্চম সংশোধনী নিয়ে ২০১০ সালে আপিল বিভাগ যে রায় দিয়েছিল, সেটার দিকে একটু দৃষ্টিপাত করেন। সেই রায়ের ৩৫৪ প্যারায় কী বলা হয়েছে? সেই প্যারা অনুযায়ী বিএনপি তো অবৈধ হয়ে যেতে পারে। সুতরাং ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে এত লাফালাফি না করে বরং পঞ্চম সংশোধনীর ব্যাপারে আপিল বিভাগের যে রায়, সে রায়টা পড়ে নিজেদের ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তা করেন। ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ে তো জিয়াউর রহমানের সামরিক শাসনের সময় যে আইনগুলো করা হয়েছে সেগুলো নিয়েও সমালোচনা করা হয়েছে। সেগুলো নিয়ে কথা বলেন না কেন?

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার হচ্ছে গণমাধ্যম সহায়ক সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ১৯৯৬ সালে সরকার গঠন করেন, তখনই প্রাইভেট টেলিভিশন চ্যানেলের লাইসেন্স দেন। আবার এখন এই সময় ব্যাপকভাবে অনলাইন মিডিয়ার বিস্তার ঘটেছে। আর মাননীয় অর্থমন্ত্রী যেটা বলেছেন, সেটি তার ব্যক্তিগত অভিমত। এটি সরকার ও দলের বক্তব্য নয়।

বৈঠকে প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আমিনুল ইসলাম আমিন, আনোয়ার হোসেন, মু. আশরাফ সিদ্দিকী বিটু, আমেনা কোহিনূর আলম, আব্দুল আউয়াল শামীম প্রমুখ।

x

Check Also

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান চান রওশন

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান দরকার বলে মনে করেন বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। বুধবার (০৭ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশজুড়ে একের পর এক ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। সেই সঙ্গে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক ...

যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ

ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। রোববার (৪ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর নুর কমিউনিটি সেন্টারে যুবলীগ আয়োজিত জরুরি নির্বাচনী সভায় ...

‘আন্দোলনের নামে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মেনে নেওয়া হবে না’

আন্দোলনের নামে কোনো ধরনের সন্ত্রাস সৃষ্টি, জণভোগান্তি এবং জণমালের ক্ষতি সরকার মেনে নেবে না বলে বিএন‌পিকে সতর্ক করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। রোববার (০৪ অক্টোবর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ত্রাণ ...

শিরোনামঃ