পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > রাজনীতি > সরকার চীন-রাশিয়াকে বোঝাতে ব‌্যর্থ : বিএনপি

সরকার চীন-রাশিয়াকে বোঝাতে ব‌্যর্থ : বিএনপি

জ‌্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :

 রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকারের ভূমিকা ‘নতজানু’ বলেই রাশিয়া ও চীনকে সংকট প্রসঙ্গে বোঝাতে ব্যর্থ হচ্ছে বলে মনে করছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের শরিক দল বাংলাদেশ লেবার পার্টির ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘রুখো আগ্রাসন, হটাও দুঃশাসন’ শীর্ষক এই আলোচনা সভা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘রোহিঙ্গা ইস্যু আজকে আমাদের জন্য সমস্যা বড় সমস্যা হয়ে গেছে। এই ইস্যুতে সরকার সম্পূর্ণভাবে একটা নতজানু ভূমিকা পালন করছে। তারা (সরকার) কোনোভাবেই আজকে এই কথা বলতে পারবে না যে, তারা তাদের সময়োচিত যে পদক্ষেপগুলো নেওয়া উচিৎ ছিল, সেগুলো তারা তা নিয়েছে।’

‘তারা জাতিসংঘ ও বিশ্বের অন্যান্য দেশকে এখন পর্যন্ত না কনভিন্স করতে পারেনি। যার ফলে রাশিয়া ও চীন এখনো কিন্তু বিরোধিতা করেই চলেছে। অন্যদিকে ভারতও মিয়ানমারের পক্ষে সমর্থন নিয়েছে।”

‘গণতন্ত্র ফেরাতে জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন’ গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান  জানিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘লড়াই চলছে, লড়াইয়ে বিএনপি কখনো পিছু পা হয়নি, আজকেও নয়। বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল, সেজন্য গণতন্ত্রের সুযোগগুলো নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। সেজন্য আমরা প্রত্যেকটা বিষয়ে মতামত দিচ্ছি, আমরা ২০৩০ সালের ভিশন দিয়েছি, আমরা নির্বাচন কমিশন গঠন কীভাবে করা যাবে তার কথা বলেছি। সবশেষ নির্বাচন কমিশনে গিয়ে আমরা আমাদের কথাগুলো পরিস্কারভাবে বলে এসেছি।’

‘আমি মনে করি যে, গণতান্ত্রিক যতটুক কাজ করার জন্য যতটুকু সুযোগ থাকে সেটা এক্সজোস্ট করতে হবে। আমরা জানি এতো সহজে সবকিছু হবার নয়। কিন্তু সেই কাজটিকে ঠিক জায়গায় পৌঁছানোর জন্য আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আজকে কোনো বিভেদ নয়, আজকে একটা ঐক্য গড়ে তুলতে হবে জনতার ঐক্য, এটা জাতীয় ঐক্য যদি গড়ে উঠে গণতন্ত্রের জন্য। তাহলেই আমরা সফল হতে পারবো।’

এজন্য তরুণ সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান ফখরুল।

তিনি বলেন, ‘২০১৪ সালের আগে আমরা জাতীয় ঐক্যের দিকে প্রায় এগিয়ে গিয়েছিলাম। সমস্ত দল ও মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল। গ্রামে-গঞ্জে রীতিমত একটা বিপ্লব হয়েছিল  কিন্তু আমরা সফল হতে পারিনি। এই ফ্যাসিবাদের যে নির্যাতন-নিপীড়নে ঢাকার মধ্যে যেটা হয়েছে, সেখানে সফল হতে পারিনি। হতে পারিনি বলে যে আর হতে পারবো না তাতো নয়। আমাদেরকে কাজ করতে হবে, লড়াই করতে হবে, সংগ্রাম করতে হবে, আমরা বিএনপিকে সংগঠিত করার চেষ্টা করছি, অন্যরাও করছেন, জনগণ ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে।”

নিত‌্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মুল‌্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গ তুলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আজকে জনগণের জীবন দুঃসহ হয়ে গেছে। চালের দাম ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে অন্যান্য দ্রব্যের দাম ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। বিদ্যুৎ, গ্যাস ও জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে। মানুষের প্রতিদিনের জীবন যাপন দুঃসহ হয়ে পড়েছে।’

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে ও পরিচালনায় আলোচনা সভায় ঢাকা বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ, লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদি, সহসভাপতি ফরিদউদ্দিন আহমেদ, ফারুক আহমেদ, এমদাদুল হক চৌধুরী, মুসলেম উদ্দিন, জহুরুল হক চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা শামসুদ্দিন পারভেজ, মাহমুদ খান, আনোয়ার হোসেন, আবদুল্লাহ আল মামুন, জাহিদুর রহমান প্রমুখ।

x

Check Also

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান চান রওশন

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান দরকার বলে মনে করেন বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। বুধবার (০৭ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশজুড়ে একের পর এক ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। সেই সঙ্গে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক ...

যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ

ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। রোববার (৪ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর নুর কমিউনিটি সেন্টারে যুবলীগ আয়োজিত জরুরি নির্বাচনী সভায় ...

‘আন্দোলনের নামে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মেনে নেওয়া হবে না’

আন্দোলনের নামে কোনো ধরনের সন্ত্রাস সৃষ্টি, জণভোগান্তি এবং জণমালের ক্ষতি সরকার মেনে নেবে না বলে বিএন‌পিকে সতর্ক করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। রোববার (০৪ অক্টোবর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ত্রাণ ...

শিরোনামঃ