পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বাংলাদেশ > অপরাধ > প্রতিবন্ধী নির্যাতন : চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রতিবন্ধী নির্যাতন : চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতিবন্ধীকে
নির্যাতনের অভিযোগে রাজশাহীর
চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ
চাঁদসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে
মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে
রাজশাহীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট
আদালত-৫ এ হাজির হয়ে মামলাটি দায়ের
করেন চারঘাটের মাড়িয়া গ্রামের
জোয়ার্দ্দারপাড়ার মৃত ইমান আলীর
প্রতিবন্ধী ছেলে শাখাওয়াত
হোসেন সিনা।

আদালতের বিচারক
মেহেদী হাসান মামলাটি আমলে নিয়ে
এজাহার হিসেবে রেকর্ড করার জন্য
চারঘাট থানার ওসিকে নির্দেশ
দিয়েছেন বলে জানান বাদি পক্ষের
আইনজীবী নবাব আলী।

উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চাঁদ
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও
চারঘাট উপজেলার সভাপতি। মামলার অপর
আসামীরা হলেন, চারঘাটের শলুয়া
ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন
যুবদলের সভাপতি জিয়াউল হক মাসুম, ইউপি
সদস্য জাইদুর রহমান, উপজেলা
চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চাঁদের ব্যক্তিগত
সহকারি জালাল উদ্দিন, মাড়িয়া গ্রামের
রফিকুল ইসলাম, শাবু শাহ, দুলাল আলী,
চনচল আলী, ইমরান আলী ও
জাহাঙ্গীর আলী।

আইনজীবী নবাব আলী বলেন, গত
২৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ইউপি
সদস্য জাইদুর রহমান ফোন করে
প্রতিবন্ধী সিনাকে শলুয়া সরকারি
প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ডেকে নিয়ে
যায়। সেখানে আগে থেকেই
উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান
আবু সাঈদ চাঁদ ও ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল
হক মাসুমসহ আসামীরা। সেখানে
পৌঁছার পর চেয়ারম্যান আবু সাঈদের
চাঁদের নির্দেশে প্রতিবন্ধী সিনাকে
নির্যাতন করা হয় বলে জানান
আইনজীবী নবাব আলী।

তিনি আরও বলেন, নির্যাতনের সময়
স্ক্যাচ দিয়ে সিনাকে আঘাত করা ছাড়াও
ভেঙ্গে ফেলা হয় দুই লাখ ২০ হাজার
টাকা
মূল্যের
কৃত্রিম
পা।

image

নির্যাতনে
সিনা
গুরুতর
জখম
হলে
প্রথমে
তাকে
স্থানীয়ভাবে
প্রাথমিক
চিকিৎসা
দিয়ে
পরের
দিন
রাজশাহী
মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি
করা হয়। চিকিৎসা শেষে সোমবার তিনি
হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান বলে জানান
আইনজীবী নবাব আলী।
মামলার বাদি শাখাওয়াত হোসেন সিনা
বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ
চাঁদের বাড়ি তাদের গ্রামে। তার ভয়ে
ওই গ্রামের কেউ প্রকাশ্যে অন্য
কোন দলের রাজনীতি করতে সাহস
পায়না। এ অবস্থার মধ্যে তারা আওয়ামী
লীগের রাজনীতি করেন। সংসদ
সদস্য হওয়ার পর শাহরিয়ার আলম তার
বাড়িতে তিনবার এসেছেন। এর পর
থেকে আবু সাঈদ চাঁদ তাদের উপর
ক্ষুব্ধ ছিলেন। জমিজমা নিয়ে নিয়ে
পারিবারিক বিরোধ মিমাংসা করার নাম করে
ডেকে নিয়ে গিয়ে তার উপর নির্যাতন
করা হয় বলে জানান তিনি।
চারঘাট থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন
বলেন, প্রতিবন্ধী নির্যাতনের বিষয়টি
শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে আদালতে
কোন মামলা হয়েছে কিনা জানা নেয়।
মামলা হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা
নেয়া হবে বলেন ওসি।
তিনি আরও বলেন, উপজেলা
চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চাঁদের বিরুদ্ধে
নাশকতাসহ মোট ২৩টি মামলা রয়েছে।
বেশ কিছুদিন তিনি কারাগারেও ছিলেন।
উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে তিনি
এলাকায় রয়েছেন বলে জানান ওসি
নিবারন।

x

Check Also

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান চান রওশন

ধর্ষণের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ অবস্থান দরকার বলে মনে করেন বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। বুধবার (০৭ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশজুড়ে একের পর এক ধর্ষণ ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। সেই সঙ্গে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক ...

যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ

ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে যুবলীগকে মাঠে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। রোববার (৪ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর নুর কমিউনিটি সেন্টারে যুবলীগ আয়োজিত জরুরি নির্বাচনী সভায় ...

‘আন্দোলনের নামে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মেনে নেওয়া হবে না’

আন্দোলনের নামে কোনো ধরনের সন্ত্রাস সৃষ্টি, জণভোগান্তি এবং জণমালের ক্ষতি সরকার মেনে নেবে না বলে বিএন‌পিকে সতর্ক করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। রোববার (০৪ অক্টোবর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ত্রাণ ...

শিরোনামঃ