পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিনোদন > সালমান শাহর মাথায় কাপড় বাঁধার নেপথ্যে কী?

সালমান শাহর মাথায় কাপড় বাঁধার নেপথ্যে কী?

নব্বইয়ের দশকের প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহ। স্টাইলিশ হিরো হিসেবেও তার খ্যাতি রয়েছে। তার মাথার লম্বা চুল, মাথায় কাপড় বাঁধার স্টাইল—লাখ তরুণের প্রিয় ছিল। কিন্তু সালমান শাহ এই স্টাইল কোথায় পেয়েছিলেন?

এ বিষয়ে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা বলেন সালমান শাহর স্ত্রী সামিরা। তিনি সালমান শাহর বেশ কিছু সিনেমার কস্টিউম ডিজাইনারও ছিলেন। সামিরা বলেন, ‘ইমনের (সালমান শাহ) সিনেমার জন্য কস্টিউম ডিজাইন আমি করে দিতাম। এখনো সিনেমায় নামগুলো খেয়াল করলে দেখা যাবে কস্টিউম ডিজাইনার হিসেবে সামিরা শাহ লেখা আছে।’

মাথায় কাপড় বাঁধার স্টাইল প্রসঙ্গে সামিরা বলেন, ‘এক সময় ইমনের চুল পড়ে যাচ্ছিল। তখন ইমনকে বললাম চুল বড় রাখতে এবং মাথায় কাপড় ব্যবহার করতে। এরপর সিনেমায় মাথায় কাপড় বেঁধে ও অভিনয় করেছে। সেই কাপড়গুলো ছিল আমার ওড়না। আমার করা ডিজাইন ইমন সব সময় পছন্দ করত।’

তিনি আরো বলেন, ‘ইমন শুটিং সেটে কথায় কথায় কেঁদে ফেলত। ডলি জহুর আন্টি আদর করে ভাত খাইয়ে দিলে দেখা যেত ও কাঁদছে। এ কথাগুলো সত্যি না মিথ্যা ডলি জহুর আন্টি বা শাবানা ম্যাডাম ভালো বলতে পারবেন। তাদের সামনেই সব ঘটেছে। তারা দেখেছেন। তারা ইমনকে ছেলের মতো আদর করত। এ কারণেই তাদের কাছ থেকে আদর পেলে সে কেঁদে ফেলত।’

নব্বইয়ের দশকে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে ধূমকেতুর মতো সালমান শাহর আবির্ভাব। মাত্র চার বছরে ২৭টি সিনেমায় অভিনয় করে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। বৃহস্পতি তুঙ্গে থাকা অবস্থাতেই সালমান শাহ ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনকভাবে মৃত্যুবরণ করেন।

x

Check Also

ঈদের জামার জন্য বাচ্চাটা কান্নাকাটি করছিল: ববি

শোবিজ তারকারা সারা বছরই ব্যস্ত থাকেন শুটিং নিয়ে। ব্যস্ততার মাঝেও ঈদকে ঘিরে থাকে নানা পরিকল্পনা ও আয়োজন। ঈদের বড় অংশ হলো কেনাকাটা। যা সাধারণত সবাই করে থাকেন। ঈদের কেনাকাটার জন্য তারকাদের কেউ যান দেশের বিপণিবিতানে, ...

‘কান্না চেপে রাখতে পারছি না’

‘মনটা বড্ড খারাপ, সারাক্ষণ চেষ্টা করছি মনটাকে ঠিক রাখার, কিন্তু কিছুতেই পারছি না। সবাই বলে প্রেগনেন্ট হলে হাসিখুশি থাকতে হয়, কী করে থাকব বলোতো! তোর কথা ভেবেই সব ভোলার চেষ্টা করছি। কিন্তু এত ধ্বংসস্তূপ আগে ...

ক্ষমা চাইলেন নোবেল

কয়েক দিন আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটাক্ষ করে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ‘সারেগামাপা-২০১৯’ খ্যাত কণ্ঠশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেল। তারপর ঢের সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। অবশেষে বিষয়টি নিয়ে ক্ষমা চাইলেন নোবেল। আজ রোববার এ শিল্পী ...

শিরোনামঃ