পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিনোদন > এখনই ‘বিদায়’ নিতে চান কাজী হায়াৎ

এখনই ‘বিদায়’ নিতে চান কাজী হায়াৎ

বিনোদন প্রতিবেদক : ‘দাঙ্গা’, ‘ইতিহাস’, ‘অন্ধকার’সহ অর্ধশত সিনেমার নির্মাতা কাজী হায়াৎ। চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই চলচ্চিত্র নির্মাণ থেকে বিদায় নিতে চাইছেন এ জনপ্রিয় নির্মাতা।

৩ আগস্ট চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি থেকে সদস্যপদ বাতিলের জন্য একটি আবেদনপত্রও পাঠিয়েছেন কাজী হায়াৎ। আবেদনপত্রটি গ্রহণ করেন পরিচালক সমিতির প্রচার প্রকাশনা ও দপ্তর সম্পাদক সাহাবুদ্দিন। অভিমান করেই চলচ্চিত্র নির্মাণ থেকে সরে দাঁড়াতে চাইছেন এ নির্মাতা। পরিচালক সমিতিতে পাঠানো তার আবেদনপত্রে এমনটাই ফুটে উঠেছে।

আবেদনপত্রে কাজী হায়াৎ লিখেছেন-একজন প্রিয় প্রযোজকের চাপে একটি সিনেমা নির্মাণ করতে গিয়ে আপনাদের কাছে চলচ্চিত্রটির নাম নিবন্ধন করার আবেদন করেছিলাম। এই নাম নিবন্ধন নিয়ে আমার সাথে আপনারা যে টালবাহানা শুরু করেছেন তাতে আমি ভীষণভাবে লজ্জিত। এই লজ্জা ঢেকে রাখার কারণে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি চলচ্চিত্র নির্মাণ থেকে বিদায় নিব। আমি জানতে চাই না আপনাদের এই টালবাহানার কারণ কি ছিল। এমতাবস্থায় দয়া করে আমার সমিতির সদস্যপদ প্রত্যাহার করে আমাকে বাধিত করিবেন।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নির্মাতা কাজী হায়াৎ রাইজিংবিডিকে বলেন, “প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া থেকে আমার স্বপ্ন আমার দেশ নামের একটি সিনেমার নাম নিবন্ধন করতে চেয়েছি। এজন্য তিন হাজার টাকা দিয়ে ম্যানেজারকে পাঠিয়েছি পরিচালক সমিতিতে। ম্যানেজার এসে জানান, নামটি সমিতি নিবন্ধন দেননি। আমি তাকে জিজ্ঞেস করেছি কি কারণে দেয়নি? নামের কারণে নাকি অন্য কারণে। ম্যানেজার জানালেন, অন্য কারণে। আমি তখনই পরিচালক সমিতির সভাপতি গুলজার সাহেবকে ফোন করেছি। কেন নামটির নিবন্ধন দেয়া হয়নি জানতে। তিনি বলেন, ‘কি হয়েছে আমি জানি না। এটা মহাসচিবের বিষয়। তবে কি হয়েছে আমি বিষয়টি দেখছি।”

কাজী হায়াৎ আরো বলেন, “গতকাল এফডিসিতে গিয়ে মহাসচিব বদিউল আলম খোকনকে জিজ্ঞেস করেছি আমার সিনেমার নামটি দেয়া হলো না কেন? আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আছে কি? তিনি জানান, অভিযোগ নেই, সভাপতি দিতে না করেছেন। এর পরে আমি সভাপতির জন্য অপেক্ষা করেছি। সভাপতি সমিতিতে এসে আমাকে দেখেও না দেখার ভান করেন। এরপরে আমি জানতে চাইলাম নামটি কেন দেয়া হলো না। তখনও বলেন, ‘এটা মহাসচিবের বিষয়। আমি দেখছি।”

কাজী হায়াৎ বলেন, ‘এই টালবাহানা আমি মানতে পারছি না। তাই আমি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

x

Check Also

হিরো আলমকে দেখতে ভিড়, সিনেমা হলে দর্শক নেই

মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘ সাত মাস পর শর্ত সাপেক্ষে গতকাল (১৬ অক্টোবর) দেশের সিনেমা হলগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। ৪০টি হলে প্রদর্শিত হচ্ছে ‘সাহসী হিরো আলম’। যদিও অধিকাংশ হলে দর্শক উপস্থিতি কম লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু ...

নজর কেড়েছে জোড়াতালির ‘গেন্দা ফুল’ (ভিডিও)

একদিকে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজের আবেদনময়ী উপস্থিতি। অন্যদিকে কোমরে প্রজাপতি ট্যাটু নিয়েও লাল পাড়, সাদা শাড়িতে বাঙালি নারী দেবলীনা। বাদশার উপস্থিতি যেমন রয়েছে, তেমনি পণ্ডিত বিক্রম ঘোষের তবলা মিক্স ও রতন কাহারের নাচ কারো দৃষ্টি ...

মায়ের ইচ্ছা পূরণ করতে চান অপু

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। কিছুদিন আগে মা শেফালি বিশ্বাসকে হারিয়েছেন তিনি। সেই শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেননি এই অভিনেত্রী। কিন্তু সময় থেমে থাকে না। বছর ঘুরে ফিরে এসেছে অপুর জন্মদিন। বিশেষ এ দিনে ...

শিরোনামঃ