পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিনোদন > গল্প রাজনৈতিক নয় : কচি খন্দকার

গল্প রাজনৈতিক নয় : কচি খন্দকার

মো: মাইনুল হাসান : জনপ্রিয় অভিনেতা ও নির্মাতা কচি খন্দকার। টেলিভিশন নাটক ও সিনেমায় নিয়মিত অভিনয় করছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি একক ও ধারাবাহিক নাটকও নির্মাণ করছেন। সম্প্রতি ‘প্রবাদ বাক্য’ শিরোনামের নতুন ধারাবাহিক নাটকের নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন তিনি। রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে এসব তথ্য জানান কচি খন্দকার।

প্রচলিত বিভিন্ন ‘প্রবাদবাক্য’ নিয়ে নির্মাণ করছেন এই ধারাবাহিক নাটক। প্রতিটা প্রবাদবাক্যর আলাদা আলাদা গল্প রয়েছে। প্রতি পর্বে একটি করে প্রবাদবাক্য নিয়ে নাটক নির্মিত হচ্ছে বলেও জানান তিনি। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করছেন কচি খন্দকার।

প্রবাদবাক্য নিয়ে কেন নাটক নির্মাণ করছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে কচি খন্দকার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষাপটে নানারকম কথা মানুষকে বলতে হয়। সেটা সব শ্রেণির মানুষই বলে থাকে। বড় বড় রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে খুব সাধারণ মানুষ। কথা বলার সময় অর্থাৎ কথার প্রেক্ষাপটে একটি প্রবাদবাক্য যতটা যথার্থভাবে অর্থ প্রকাশ করে অন্য কোনোভাবে তা প্রকাশ করা দুষ্কর। তাই মানুষ কথা বলার সময় প্রবাদের আশ্রয় নেয়। যাতে করে অল্প কথার মাধ্যমে অনেক ভাব প্রকাশ করা যায়। যেমন- ‘খালি কলসি বাজে বেশি’, ‘উপরে ফিটফাট ভেতরে সদরঘাট’ প্রভৃতি। এই যে প্রবাদবাক্যগুলো রয়েছে এসবের সঠিক ব্যাখ্যাও আবার অনেকে জানেন না। তাই এই উৎকৃষ্ট বিষয়টি আমি সচিত্রে মানে গল্পের মাধ্যমে মানুষের সামনে উপস্থাপন করছি।’

ইতিমধ্যে তিনটি প্রবাদের শুটিং শেষ হয়েছে। মোট ২০টি প্রবাদবাক্য নিয়ে কাজ করার পরিকল্পনা আপাতত রয়েছে বলে জানিয়েছেন কচি খন্দকার। প্রতিটি পর্বের দৈর্ঘ্য হবে ২০ মিনিট। এসব প্রবাদবাক্যের গল্পে রাজনৈতিক কোনো অসঙ্গতির প্রেক্ষাপট তুলে আনছেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘না। এসব প্রবাদের গল্প রাজনৈতিক নয়, এগুলো সামাজিক। একেকটা প্রবাদের সঙ্গে গল্প পাল্টে যাবে। এই প্রবাদ যখন তৈরি হয়েছে তখন শুধু একটি বিষয়কে কেন্দ্র করে তৈরি হয়নি। ব্যবহারের ক্ষেত্রেও একটি বিষয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। যেমন- চোরের মায়ের বড় গলা। এই প্রবাদ কিন্তু সব ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়।’

চোরে চোরে মাস্তুত ভাই, শাক দিয়ে মাছ ঢাকা, অন্যের ধনে পোদ্দারি, উপরে ফিটফাট ভেতরে সদরঘাটসহ বিভিন্ন প্রবাদবাক্য নিয়ে একেকটি পর্ব নির্মাণ করছেন তিনি। এসব পর্বে জনপ্রিয় অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিম, মোশাররফ করিমসহ বাংলাদেশের সেরা অভিনয়শিল্পীরা বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন।

তবে সবার নাম এখনি জানাতে নারাজ কচি। কারণ সবার নাম একসঙ্গে প্রকাশ করবেন যাতে কারো নাম বাদ না পড়ে। নাটকটি খুব শিগগিরই চ্যানেল আইতে প্রচার শুরু হবে বলেও জানান কচি খন্দকার।

x

Check Also

দেবকে ছাড়লেন রুক্মিনি

ভারতীয় বাংলা সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী রুক্মিনি মৈত্র। ২০১৭ সালে ‘চ্যাম্প’ সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রাখেন তিনি। অভিষেক চলচ্চিত্রে জনপ্রিয় চিত্রনায়ক দেবের সঙ্গে জুটি বেঁধে পর্দায় হাজির হন। তারপর ‘ককপিট’, ‘কবীর’, ‘কিডন্যাপ’ ও ‘পাসওয়ার্ড’ সিনেমাতেও ...

অন্তঃসত্ত্বা শুভশ্রীর বাড়িতে করোনা শনাক্ত, চিন্তিত রাজ

কলকাতার বাইপাসের বিলাসবহুল বিভিন্ন বাড়িতে টলিউডের অনেক তারকা বসবাস করেন। সেখানকার একটি বাড়িতে থাকেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী-শুভশ্রী গাঙ্গুলি ও শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। তাদের এই বাড়িতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এতে বেশ উৎকণ্ঠায় দিন কাটছে তাদের। ...

মুম্বাইয়ে কষ্ট করছি: শিমলা

‘ম্যাডাম ফুলি’ সিনেমার কথা মনে আছে? নব্বইয়ের দশকে মুক্তি পাওয়া জনপ্রিয় এই সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন চিত্রনায়িকা শিমলা। এ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। আর প্রথম সিনেমায় অভিনয় করেই জিতে নেন জাতীয় চলচ্চিত্র ...

শিরোনামঃ