পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিনোদন > ‘পোড়ামন-২’তে সিয়াম-পূজা

‘পোড়ামন-২’তে সিয়াম-পূজা

“কে হচ্ছে ‘পোড়ামন-২’-এর হিরো? সঠিক উত্তর দিতে পারলেই পেয়ে যাবেন আইফোন সেভেন প্লাস (২৫৬ জিবি)।” সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ কিছুদিন ধরেই এই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছিল। অবশেষে ছবির নির্মাতা রায়হান রাফি জানালেন, ছবিতে পূজা চেরির বিপরীতে দেখা যাবে ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সিয়াম আহমেদকে। আর এ ছবির মধ্য দিয়েই রূপালি পর্দায় অভিষেক ঘটবে তার। গতকাল রবিবার মহরত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নায়কের নাম ঘোষণার কথা থাকলেও সেই পরিকল্পনা বাতিল করে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। কারণ অনুষ্ঠানের পুরোটা টাকাই তারা রোহিঙ্গাদের দেবেন।
ছোটপর্দায় বর্তমানে যারা ভালো কাজ করছেন, সিয়াম আহমেদ তাদের মধ্যে অন্যতম। নাটক-টেলিছবি ছাড়া স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে নিজেকে মেলে ধরেছেন সাবলীলভাবে। পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে কাজ করা প্রসঙ্গে সিয়াম বলেন, বড় পর্দায় প্রথম অভিনয় করছি, তাই বাড়তি প্রস্তুতি নিচ্ছি।
অন্যদিকে টেলিভিশন বিজ্ঞাপন, নাটক ও চলচ্চিত্রে পার্শ্বচরিত্রের পর এবার পূজাকে দেখা যাবে মূল চরিত্রে। তাই বেশ উচ্ছ্বসিত তিনি। বললেন, এই প্রথম নায়িকা হিসেবে অভিনয় করতে যাচ্ছি। এটি ভেবেই খুব ভালো লাগছে।
জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘পোড়ামন-২’ ব্যবসাফল ছবি ‘পোড়ামন’-এর সিক্যুয়াল। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে মেহেরপুর ও কুষ্টিয়ায় এর শুটিং হবে।
২০১৩ সালের ১৪ জুন মুক্তি পাওয়া জাকির হোসেন রাজুর পরিচালনায় ‘পোড়ামন’-এ জুটি বেঁধেছিলেন সাইমন ও মাহি। এ ছবিটি মুক্তির চার বছর পর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া ‘পোড়ামন-২’ নির্মাণ করতে যাচ্ছে।

x

Check Also

ছবিতে আলোচিত শ্বেতা

বিনোদন ডেস্ক :  ভারতীয় অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। টেলিভিশন নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে শোবিজ অঙ্গনে পা রাখেন তিনি। টিভি সিরিয়ালে অভিনয় করে অল্প সময়ের মধ্যে পরিচিতি লাভ করেন শ্বেতা। পরবর্তীতে নাম লেখান চলচ্চিত্রে। হিন্দি, কন্নড়, পাঞ্জাবি, মারাঠিসহ ...

ঈদের দ্বিতীয় দিন ছোট পর্দার নাটক-টেলিফিল্ম

বিনোদন ডেস্ক: বরাবরের মতো এবারো টেলিভিশন চ্যানেলগুলো নানা আয়োজনে সাজিয়েছে তাদের অনুষ্ঠানমালা। ঈদুল আজহা উপলক্ষে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর অন্যতম আকর্ষণ থাকে নাটক-টেলিফিল্ম। এবারো তার ব্যতিক্রম হয়নি। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে ঈদের দ্বিতীয় দিন যেসব নাটক-টেলিফিল্ম প্রচারিত হবে ...

ঈদের দিন খুব কেঁদেছিলাম: ববিতা

ঈদ মানে আনন্দ। আর এই আনন্দটা শৈশবে বেশি হতো। ঈদে অনেক মজা করতাম। ছোটবেলার ঈদ মানেই ছিল ঈদি কালেকশন। এটাই ছিলো আসল মজা! সকালবেলা নতুন জামা-কাপড় পরে আত্মীয়-স্বজনদের বাসায় যেতাম। চাচা-চাচি, দাদা-দাদি, নানা-নানিদের কাছ থেকে ...

শিরোনামঃ