পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > আন্তর্জাতিক > জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশের পরিবারগুলোর ব্যয় ২০০ কোটি ডলার

জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশের পরিবারগুলোর ব্যয় ২০০ কোটি ডলার

জলবায়ু পরিবর্তনজনিত দুর্যোগ মোকাবেলা কিংবা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিধ্বস্ত বাড়িঘর পুনর্নির্মাণে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের পরিবারগুলো বছরে প্রায় ২০০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করে। তাদের এই ব্যয় ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় সরকার কিংবা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর ব্যয়ের দ্বিগুণেরও বেশি।

জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার গবেষণা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ইনিস্টিটিউট ফর এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এক নতুন প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

‘জলবায়ুর দায় বহন : বাংলাদেশের পরিবারগুলো কীভাবে অতিরিক্ত ব্যয় করছে’ শীর্ষক প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলের পরিবারগুলো জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতির জন্য বছরে গড়ে ৭৯ মার্কিন ডলার করে খরচ করে। এই পরিবারগুলোর অধিকাংশই আবার দরিদ্র। মোট ব্যয়ের হিসেবে এটি জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশ সরকারের ব্যয়িত অর্থের প্রায় দ্বিগুণ। আর বহুপক্ষীয় আন্তর্জাতিক জলবায়ু অর্থায়ন থেকে যে তহবিল বাংলাদেশ পায় এটি তার ১২ গুণ বেশি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতি কাটাতে বাংলাদেশ সরকার ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে বরাদ্দ ছিল ১৪৬ কোটি মার্কিন ডলার। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে এই বরাদ্দ ছিল ৮৮ কোটি ৪০ লাখ মার্কিন ডলার। জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতির শিকার পরিবারগুলো আন্তর্জাতিক জলবায়ু ও দুর্যোগ খাত থেকে বছরে পায় মাত্র ১৫ কোটি ৪০ লাখ মার্কিন ডলার বা গড়ে ৬ দশমিক ৪২ ডলার মাত্র।

গবেষণায় দেখা গেছে, কর্মজীবী নারী রয়েছে যেসব পরিবারে তাদেরকে পুরুষ প্রধান পরিবারগুলোর তুলনায় ক্ষতি কাটাতে তিনগুণ বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয়। এতে এটা প্রমাণিত হয় যে, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নারীর ওপর বেশি পড়ছে।

অতিরিক্ত ব্যয়ের ফলশ্রুতিতে দরিদ্র পরিবারগুলোকে খাদ্য, শিক্ষা ও চিকিৎসার মতো মৌলিক চাহিদাগুলো মেটানোর পরিবর্তে বাড়িঘর মেরামত ও গবাদি পশু ক্রয় অথবা নষ্ট হয়ে যাওয়া ফসলের ক্ষতি পোষানোর পেছনে ব্যয় করতে হয়। এছাড়া বন্যার পানি থেকে রক্ষা পেতে বাড়িঘর উঁচুস্থানে সরিয়ে নিতে অর্থ ব্যয় করতে হয় পরিবারগুলোকে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত বিপর্যয়ের কারণে বাড়িঘর মেরামতে এই পরিবারগুলোকে স্থানীয়ভাবে চড়া সুদে ঋণ নিতে হয়, যা তাদেরকে দরিদ্রতার অতলে ঠেলে দিচ্ছে।

x

Check Also

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে স্থানীয় এক মানবপাচারকারীর পরিবারের সদস্যরা। বাকি ৪ জন আফ্রিকার নাগরিক। বৃহস্পতিবার (২৮ মে) রাতে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা ...

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার নতুন আরেক লক্ষণ চিহ্নিত

করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার যেসব লক্ষণ এতোদিন ধরে বলা হচ্ছিল; তার সঙ্গে এবার আরও একটি লক্ষণ যোগ হয়েছে। ঘ্রাণশক্তি লোপ পাওয়ার এই লক্ষণেও চেনা যাবে করোনায় আক্রান্তকে। ফ্রান্সের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ সম্ভাব্য নতুন এই লক্ষণের কথা জানিয়েছে ...

‘আমরা করোনার বিরুদ্ধে বিজয় থেকে একধাপ দূরে’

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ শনিবার (২৩ মে) দাবি করেছেন তারা করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে বিজয় থেকে একধাপ দূরে অবস্থান করছেন। শনিবার দেশটিতে করোনাভাইরাসে ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। যেটা এক সময় দৈনিক ৯৫০ জনে গিয়ে ঠেকেছিল। খবর আনাদোলু ...

শিরোনামঃ