পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > জীবনযাপন > চালু হলো আরো একটি নগ্ন রেস্তোরাঁ

চালু হলো আরো একটি নগ্ন রেস্তোরাঁ

পৃথিবীতে নগ্ন রেস্তোরাঁর ধারণা নতুন নয়। বিস্ময়কর হলো এর সবই উন্নত বিশ্বের কাণ্ড! এবার এই তালিকায় যুক্ত হলো সুইজারল্যান্ড।

দেশটির বিখ্যাত শহর বাসেলে চালু হতে যাচ্ছে এই রেস্তোরাঁ। অবাক করা বিষয় হলো, কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দেয়ার পরদিন থেকেই বেশ সাড়া মিলেছে। এমনকি অগ্রিম বুকিং পেতে গ্রাহকদের হুড়োহুড়ি শুরু হয়ে গেছে। আর তাতে রোস্তোরাঁ কর্তৃপক্ষ দারুণ খুশি। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহে ঘটা করে রেস্তোরাঁর উদ্বোধন করবেন।

সুইজারল্যান্ডের সুইস অ্যাম ওয়াচেনডে পত্রিকার খবর অনুযায়ী, ইডেলওয়াইজ বাসেল-নুডিসটেন লাউঞ্জ’ নামে রেস্তোরাঁটি চালু করা হচ্ছে রেবগ্যাসে-৩৯ ক্লাবে, যেটি একসময় সমকামী এবং লেসবিয়ানদের ক্লাব হিসেবে পরিচিত ছিল।

এই রেস্তোরাঁয় যারা খেতে যাবেন, তাদের কেউ পোশাক পরতে পারবেন না। নগ্ন শরীরে খেতে বসতে হবে। এমনকি যারা খাবার পরিবেশন করবেন তারাও থাকবেন নগ্ন।

সুইজারল্যান্ডে যদিও এ ধরনের রোস্তোরাঁর ধারণা নতুন, তবে বিশ্বের কিছু দেশে কয়েক বছর আগেই নগ্ন রোস্তোরাঁ চালু হয়েছে। বিশ্বে সর্বপ্রথম নগ্ন রোস্তোরাঁ চালু করে প্যারিস, তারপর লন্ডন। কিন্তু সেগুলো ইতোমধ্যে বন্ধ হয়ে গেছে যথেষ্ট গ্রাহক না পাওয়ায়।

সুইজারল্যান্ডে নগ্নতা নিষিদ্ধ নয়, যতক্ষণ না বিষয়টি অশ্লীল বা উচ্ছৃঙ্খল পর্যায়ের না হয়। দেশটিতে নগ্নতা প্রশ্রয় পাওয়ার অন্যতম প্রমাণ হলো ‘বার্ষিক বডি অ্যান্ড ফ্রিডম ফেস্টিভ্যাল’। এই উৎসব প্রতি বছরের অগাস্ট মাসে জুরিখে অনুষ্ঠিত হয়। উৎসবে সবাই নগ্ন শরীরে অংশ নিয়ে থাকেন।

x

Check Also

ড্রাগন ফল কতটা স্বাস্থ্যকর?

বেশ কয়েক বছর ধরেই বাজারে ড্রাগন ফল দেখা যায়। দেশের কয়েকটি জেলায় বিদেশি এই ফল চাষও বাড়ছে উল্লেখযোগ্য হারে। এই ফলকে পিথায়া বা স্ট্রবেরি পিয়ারও বলে। তবে আমাদের দেশে এটি ড্রাগন ফল হিসেবেই পরিচিতি পাচ্ছে। ...

সহজেই নিজের দক্ষতা বাড়ান

কম্পিউটারে ফেসবুক চালানো আর ইউটিউবে ভিডিও দেখা ছাড়াও অনেক রকমের কাজ করা যায়। এ কথা সবার জানা থাকলেও, অনেকেই গুরুত্ব দেয় না। আর যারা গুরুত্ব দেয় তারা ইতোমধ্যে কম্পিউটারের বিভিন্ন কাজে দক্ষতা অর্জন করে নিজেকে ...

পাঁচ বছরের বৃদ্ধ

বিজ্ঞানের উন্নতির সঙ্গে রোগের সম্পর্ক চিরকাল বৈরি। একটি ডালে ডালে চললে অপরটি চলে পাতায় পাতায়। অর্থাৎ বিজ্ঞান যত উন্নতি করে, তত নিত্যনতুন রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। চিকিৎসা বিজ্ঞানের নাভিশ্বাস কমে না। নইলে আরো নতুন ওষুধ, ...

শিরোনামঃ