পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > আমাদের রাজশাহী > বাঘায় দেড় কোটি টাকা নিয়ে উধাও সমবায় সমিতি

বাঘায় দেড় কোটি টাকা নিয়ে উধাও সমবায় সমিতি

রাজশাহীর বাঘা সদরে অবস্থিত ‘জনতা সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি’ নামের একটি বেসরকারি সংস্থার বিরুদ্ধে দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে উধাও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে সমিতির লোকজন লাপাত্তা হয়। খবর শুনে ছুটে আসছেন গ্রাহকরা। এদের মধ্যে ৩০ লাখ টাকা সঞ্চয়কারী আনন্দ নামের এক গ্রাহক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।
স্থানীয় লোকজন ও গ্রাহকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পাঁচ বছর আগে বাঘা সদরে অবস্থিত আঞ্জুমান শপিং কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় তলায় গড়ে উঠে জনতা সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি। তারা ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে ব্যবসায়ী বেছে নিলেও সঞ্চয় গ্রহণের ক্ষেত্রে কোনো বাধ্যবাধকতা ছিল না। অধিক হারে লাভ দেওয়ায় সব পেশার মানুষই এখানে টাকা সঞ্চয় করত।

দুপুরে ওই অফিসে গিয়ে দেখা যায়, অনেক গ্রাহক ছুটে এসেছেন তাদের পাওনা টাকা নিতে। এদের মধ্যে নারায়ণপুর এলাকার আনন্দ মোহনের রয়েছে ৩০ লাখ টাকার সঞ্চয়। পান্নাপাড়া গ্রামের মঞ্জুরা বেগমের ৪৫ হাজার, বেরিলাবাড়ি এলাকার শিউলি খাতুনের ৫০ হাজার, বাজুবাঘা নতুনপাড়া গ্রামের ফিরোজ হাসানের দেড় লাখ, নারায়ণপুর মিস্ত্রীপাড়ার আজমিরার এক লাখ টাকাসহ আরো অনেকের সঞ্চয় রয়েছে এখানে।

টাকা জমানো ভুক্তভোগীরা জানান, কুষ্টিয়া থেকে আগত এই সংস্থাটি পাঁচ বছর ধরে এখানে অবস্থান করছে। এই সংস্থার সঙ্গে স্থানীয় কিছু লোকজন কাজ করায় আমরা তাদের বিশ্বাস করে টাকা জমিয়েছি। হঠাৎ মোবাইল ফোন বন্ধ করে এভাবে তারা লাপাত্তা হবে সেটা ভাবিনি।

আত্মগোপনকারী সমিতির মাঠ সুপারভাইজার আবদুল আওয়ালের মুঠোফনে যোগাযোগ করা হলে তাঁকেও পাওয়া যায়নি। তবে তাঁর মা জেসমিন বেগম দুঃখ প্রকাশ করে জানান, তিনি তার ছেলেকে এই চাকরিটা পাইয়ে দিতে ওই সংস্থাকে দুই লাখ টাকা দিয়েছিলেন।

সমিতির ম্যানেজার সাত্তার হোসেন এবং অফিস সহকারী সুমন হাসানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁদের পাওয়া যায়নি। তবে ম্যানেজার সাত্তার হোসেন বদলি হওয়ার কথা বলে পাঁচদিন আগে বাড়ি বদল করেছেন বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এ বিষয়ে জানতে বাঘা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা রুহুল আমিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সমিতিটি আমাদের কাছ থেকে রেজিস্ট্রেশন করেছে। তারা যদি দেশের মধ্যে থাকে, তবে পালিয়ে বাঁচতে পারবে না। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহামুদ জানান, ঘটনাটি লোক মুখে শুনেছি। তবে কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

x

Check Also

১৯৭১ আমার মুক্তিযুদ্ধ’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন মেয়র লিটন

বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল রচিত ‘১৯৭১ আমার মুক্তিযুদ্ধ’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। আজ বুধবার দুপুরে নগরভবনে মেয়রের দপ্তরকক্ষে মহান মুক্তিযুদ্ধের গল্প বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ...

দেশে করোনায় আরও ৩০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৫৬

দেশে নতুন করে ১ হাজার ৩৫৬ জনের দেহে নভেল করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ রোগের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া এই রোগে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য ...

রাজশাহী বিভাগে একদিনে বেড়েছে ৪৩ করোনা রোগী

রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় একদিনে ৪৩ জন করোনা রোগী বেড়েছে। নতুন আক্রান্ত এসব ব্যক্তিরা বৃহস্পতিবার শনাক্ত হয়েছেন। শুক্রবার (২৯ মে) দুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রাজশাহীর আট ...

শিরোনামঃ