পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > খেলা > আন্তর্জাতিক ক্রিকেট > হেসেখেলে বাংলাদেশকে হারাল ভারত

হেসেখেলে বাংলাদেশকে হারাল ভারত

নিদাহাস ট্রফির দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতের কাছে ৬ উইকেটে হারল বাংলাদেশ।

আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৩৯ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ৮ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে ভারত। প্রথম ম্যাচ হারের পর জয়ে ফিরল ভারত। আর বাংলাদেশের শুরুটা হলো বাজে।

স্কোর: ভারত ১৪০/৪ (১৮.৪ ওভার)

বাংলাদেশ ১৩৯/৮ (২০ ওভার)

ভারতের আরেকটি সাফল্য: বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে শতভাগ জয়ের রেকর্ড ধরে রাখল ভারত। এর আগে দুই দল পাঁচটি টি-টোয়েন্টি খেলেছিল। প্রতিটিতেই জয় ছিল ভারতের। এবারও তার ব্যতিক্রম হলো না।

প্রত্যাশিত জয় ভারতের: দ্রুত দুই উইকেট হারালেও পথ হারায়নি ভারত। অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে মন্ডিশ পান্ডে (২৭) জয়ের বন্দরে নিয়ে যান ভারতকে। তাকে সঙ্গ দেন দিনেশ কার্তিক (২)। ব্যাট-বলের অসাধারণ পারফরম্যান্সে ভারত তুলে নিয়েছে প্রত্যাশিত জয়।

তাসকিন ফেরালেন ধাওয়ানকে: বল হাতে নির্বিষ তাসকিন পেলেন প্রথম সাফল্য। ফেরালেন শেখর ধাওয়ানকে। ৪৩ বলে ৫৫ রান করেন ধাওয়ান। তার আউটের সময় ভারতের রান ৪ উইকেটে ১২৩।

রুবেলের গতির কাছে হারলেন রায়না: বাড়তি বাউন্সের সাথে বাড়তি পেস। তাতেই শেষ সুরেশ রায়না। একটু সরে লেগ সাইডে খেলতে চেয়েছিলেন। কিন্তু স্কয়ার লেগে মিরাজের হাতে ক্যাচ দেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ২৮ রান আসে তার ব্যাট থেকে। তার আউটের সময় ভারতের রান ৩ উইকেটে ১০৮।

শেখর ধাওয়ানের ফিফটি: শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে দারুণ ব্যাট করেছিলেন শেখর ধাওয়ান। প্রথম ম্যাচের ফর্ম দ্বিতীয় ইনিংসেও টেনে এনেছেন ধাওয়ান। নাজমুল ইসলাম অপুকে চার মেরে ৩৫ বলে তুলে নিয়েছেন ফিফটি। তার ব্যাটে জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে ভারত।

রুবেলের শিকার পান্ত: মুস্তাফিজকে চার মেরে শুরু করেছিলেন রিসভ পান্ত। কিন্তু বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে পারেননি। রুবেলের অফস্টাম্পের কাছে ঘেঁষা বল কাট করতে গিয়ে বোল্ড হন পান্ত। তার ফিরে যাওয়ার সময়ে ভারতের রান ২ উইকেটে ৪০।

মুস্তাফিজ ফেরালেন রোহিতকে: এর আগেও রোহিত শর্মাকে একাধিকবার আউট করেছেন মুস্তাফিজ। আজও করলেন সেই পুরোনো অস্ত্র ব্যবহার করে। একটু ভেতরে ঢোকানো বলে প্লেড অন হন রোহিত। ১৩ বলে ১৭ রান করে বোল্ড হন রোহিত। তার আউটের সময় ভারতের রান ১ উইকেটে ২৮।

ভারতের নিয়ন্ত্রিত বোলিং, বাংলাদেশের নড়বড়ে ব্যাটিং: দারুণ বোলিংয়ে বাংলাদেশকে অল্প রানে বেঁধে রেখেছে ভারত। জয়ের স্বপ্ন তারা দেখতেই পারে। বাংলাদেশ অসাধারণ কিছু না করলে ভারতকে আটকানো সম্ভব নয়। টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে বাংলাদেশ শুরু থেকেই ছিল নড়বড়ে। শেষ পর্যন্ত লিটনের ৩৪ ও সাব্বিরের ৩০ রানে বাংলাদেশ পায় লড়াকু সংগ্রহ। তবে ব্যাটসম্যানদের এলোমেলো ব্যাটিংয়ে হতাশ ক্রিকেটপ্রেমিরা। বাজে শট নির্বাচন এবং লড়াই না করার মানসিকতায় হতাশ তারা।

রান আউটে আউট রুবেল: তাসকিনের ডাকে সাড়া দিয়ে দুই রান নিতে চেয়েছিলেন রুবেল হোসেন। কিন্তু লং অন থেকে সুরেশ রায়নার থ্রো থেকে বাঁচতে পারেননি রুবেল। রান আউটে সাজঘরে ফিরেছেন শূন্য রানে।

সাব্বিরের ব্যাটে প্রতিরোধ: লিটন কুমার দাস প্রয়োজনীয় রান করেছিলেন। সাব্বির রহমান শেষ দিকে রাখলেন অবদান। উনদাকাটের তৃতীয় শিকারে পরিণত হওয়ার আগে ২৬ বলে ৩০ রান করেন সাব্বির। তার ব্যাটে দেড়শর স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ। কিন্তু তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ৭ উইকেটে ১৩৪। ইনিংস শেষ হওয়ার ৭ বল আগে আউট হন সাব্বির।

মিরাজ ফিরলেন অল্পরানে: উনদাকাটের বলে তুলে মারতে গিয়ে লং অনে ৩ রানে ক্যাচ দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তার ক্যাচ সহজেই তালুবন্দি করেন মনিশ পান্ডে। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ৬ উইকেটে ১১৮।

চাহালের প্রথম শিকার লিটন: বড় মঞ্চে বড় রান করার সুযোগ পেয়েছিলেন লিটন কুমার দাস। কিন্তু লিটন ব্যর্থ। ব্যর্থ হলেও দলের জন্য প্রয়োজনীয় রান করেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ৩০ বলে ৩৪ রান আসে তার ব্যাট থেকে। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ৫ উইকেটে ১০৭ । চাহালের বলে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে লং অফে ক্যাচ দেন লিটন। তার ইনিংসে ছিল ৩টি চারের মার।

সাব্বির জীবন পেলেন ৯ রানে: ২২ গজের ক্রিজে চাপ নিতে ব্যর্থ সাব্বির রহমান। বিজয় শংকরের বলে এলোমেলো শট খেলতে গিয়ে ক্যাচ দেন মিড উইকেটে। বোলার নিজেই দৌড়ে গেলেন বল ধরতে। ড্রাইভ দিয়ে বল তালুবন্দি করেছিলেন। কিন্তু ধরে রাখতে পারিনি। বল বেরিয়ে যায় দুই হাত থেকে। ৯ রানে সাব্বির জীবন পান।

মাহমুদল্লাহর ৮ বলে ১: মুশফিকের আউটে ব্যাটিংয়ে নামলেও মাহমুদউল্লাহ নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ। ৮ বলে ১ রান করে সাজঘরে ফেরেন বিজয় শংকরের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে। অফস্টাম্পের বাইরের বল তুলে মারতে গিয়ে কভারে ক্যাচ দেন অধিনায়ক। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ৪ উইকেটে ৭২।

রিভিউ নিয়ে মুশফিককে ফেরাল ভারত: তামিম ফিরে যাওয়ার পর বেশ আত্মবিশ্বাসী ছিলেন মুশফিকুর রহিম। উইকেটের চারপাশে শট খেলে রান পাচ্ছিলেন। কিন্তু উইকেটে টিকে থাকতে পারলেন না। বিজয় শংকরের বলে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে উইকেটের পিছনে ক্যাচ দেন। আম্পায়ার আঙুল না তুললে রোহিত শর্মা রিভিউয়ের আবেদন করেন। তাতেই সাফল্য পায় ভারত। বিজয় শংকর পান প্রথম আন্তর্জাতিক উইকেট। ১৪ বলে ১৮ রান করেন মুশফিক। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ৩ উইকেটে ৬৬।

লিটনের দুটি ক্যাচ হাতছাড়া: পেসার বিজয় শংকর নিজের প্রথম ওভারেই দুটি সুযোগ তৈরি করেছিলেন, দুটিই হাতছাড়া হয়েছে ফিল্ডারদের ব্যর্থতায়। ৭ রানে থাকা লিটনের ক্যাচ মিড অফে ছাড়েন সুরেশ রায়না। ৮ রানে ফাইন লেগে তার ক্যাচ মিস করেন ওয়াসিংটন সুন্দর। তিনে ব্যাটিং করলেও শুরু থেকেই নড়বড়ে লিটন।

শুরুতেই পিছিয়ে বাংলাদেশ: পাওয়ার প্লে’র সুবিধা কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ। ৬ ওভারে ৪৪ রান তুলতেই হারিয়েছে ২ উইকেট। তামিম ও সৌম্য বাজে শট খেলে ফিরেছেন সাজঘরে।

তামিমকে ফেরালেন শার্দুল: রিভিউ নিয়ে বাঁচলেও বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি তামিমের ইনিংস। শার্দুল ঠাকুরকে পরপর দুই বলে দুটি বাউন্ডারি মারলেও তৃতীয় বলে আউট তামিম। পঞ্চম ওভারের শেষ বল পুল করতে গিয়ে শর্ট ফাইন লেগে ক্যাচ দেন ১৬ বলে ১৫ রান করা তামিম। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ২ উইকেটে ৩৫।

রিভিউ নিয়ে বাঁচলেন তামিম: শার্দুল ঠাকুরের স্টাম্পের ওপরের বল সরে এসে লেগ সাইডে খেলতে চেয়েছিলেন তামিম। বল আঘাত করে প্যাডে। আম্পায়ার রানমোরে মার্টিনেজ বোলারের আবেদনে আঙুল তুলে তামিমকে এলবিডব্লিউ দেন। রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান দেশসেরা ওপেনার। বল উইকেটে আঘাত করলেও, বল আউট সাইড অফ দ্য স্টাম্প পিচ করেছিল।

বাজে শটে সৌম্য সাজঘরে: উনদাকাটের করা দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয় বল স্কয়ার লেগ দিয়ে ছক্কা হাঁকান সৌম্য সরকার। দুই বল পরই প্রতিশোধ নেন ভারতীয় পেসার। এবার একটু স্লো বলে সৌম্য আউট। একই শট খেলতে গিয়ে শর্ট ফাইন লেগে চাহালের হাতে ক্যাচ দেন ১৪ রানে। শুরুটা ভালো করলেও সেই ‘পুরোনো রোগে’ বাঁহাতি ওপেনার। তার আউটের সময় বাংলাদেশের রান ২ উইকেটে ২০।

সৌম্যর ক্যাচ নো ম্যানস ল্যান্ডে: প্রথম ওভারের শেষ বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে টপ এজ সৌম্য সরকার। বল যায় থার্ড ম্যান অঞ্চলে। দৌড়েও বল তালুবন্দি করতে পারেননি ওয়াসিংটন সুন্দর। পয়েন্ট থেকে মনিশ পান্ডেও দৌড় দিয়েছিলেন। কিন্তু বল তারও নাগালের বাইরে ছিল।

টস: টস জিতে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। টসের সময় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও বলেছেন টস জিতলে তিনি ফিল্ডিং নিতেন।

বাংলাদেশ দল: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

ভারত দল: রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, সুরেশ রায়না, মনিশ পান্ডে, রিসভ পান্ত, দিনেশ কার্তিক, ওয়াসিংটন সুন্দর, বিজয় শংকর, জয়দেব উনদাকাট, যুজবেন্দ্র চাহাল, শার্দুল ঠাকুর।

পারবে তো বাংলাদেশ? বাংলাদেশের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের সূচক তলানিতে। ব্যাট-বল দুই বিভাগেই ফ্লপ টাইগাররা। অতীত পরিসংখ্যানও বাংলাদেশকে সমর্থন করছে না। শেষ ১৩ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে ১২টি। জিতেছে মাত্র ১টিতে। অবশ্য শেষ জয়টা এসেছিল শ্রীলঙ্কার মাটিতেই। মাশরাফি বিন মুর্তজার বিদায়ী ম্যাচে বাংলাদেশ হারিয়েছিল শ্রীলঙ্কাকে।

জয়ের খাতা খোলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ: ভারতের বিপক্ষে ২০০৯ সাল থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত মোট ৫টি টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশ। প্রতিটিতেই জিতেছে ভারত। এবার কি জয়ের খাতা খুলতে পারবে মাহমুদউল্লাহর বাংলাদেশ? দুই দল শেষ মুখোমুখি হয়েছিল ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বেঙ্গালুরুতে। সেবার জয়ের খুব কাছে গিয়েও বাংলাদেশ হেরেছিল মাত্র ১ রানে। বেঙ্গালুরুর প্রতিশোধ কলম্বোতে নিতে পারে কিনা সেটাই দেখার।

x

Check Also

ভারতকে উড়িয়ে শ্রীলঙ্কার শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ নিদাহাস ট্রফির শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার। কুশল পেরেরার ঝোড়ো ফিফটিতে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে লঙ্কানরা। কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ...

ছিটকে গেলেন সাকিব, দলে ঢুকলেন লিটন

ক্রীড়া প্রতিবেদক :  শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফিতে সাকিব আল হাসানের খেলা নিয়ে ছিল শঙ্কা। সেই শঙ্কাই সত্যি হলো। বাঁ হাতের আঙুলের চোট পুরোপুরি না সারায় সাকিবের নিদাহাস ট্রফিতে খেলা হচ্ছে না। একটা-দুটো ম্যাচ না, পুরো টুর্নামেন্টেই খেলতে ...

গেইলদের এ কেমন ব্যাটিং!

ক্রীড়া ডেস্ক : ভাগ্যিস প্রস্তুতি ম্যাচ ছিল। নয়তো এমন লজ্জা ১৯৯৬ সালের পর আবার পেত ওয়েস্ট ইন্ডিজ! প্রস্তুতি ম্যাচ হওয়ায় ম্যাচের পরিসংখ্যান থাকবে না রেকর্ড বুকে।হারিয়ে যাবে স্কোরকার্ডও। কিন্তু ক্রিকেটপ্রেমীদের মস্তিষ্ক থেকে কিভাবে এ ম্যাচ ...

শিরোনামঃ