পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি > ব্রিটিশ কাউন্সিল ও বিডিওএসএনের প্রোগ্রামিং কর্মশালা

ব্রিটিশ কাউন্সিল ও বিডিওএসএনের প্রোগ্রামিং কর্মশালা

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : ২৫টি জেলার পাবলিক লাইব্রেরিতে শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং শেখানোর জন্য প্রোগ্রামিং কর্মশালার আয়োজন করবে ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশ। রাসবেরি পাই নির্ভর সাশ্রয়ী মূল্যের বিশেষ কম্পিউটার কানো ও মাইক্রোবিট ব্যবহার করে এই প্রোগ্রামিং শিক্ষা কার্যক্রমে একাডেমিক সহায়তা প্রদান করবে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন)।

২০ সেপ্টেম্বর, ঢাকার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে এই বিষয়ে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষর করেন ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের ডেপুটি ডিরেক্টর এন্দ্রু নিউটন এবং বিডিওএসএনের সহসভাপতি ড. লাফিফা জামাল।

এই আয়োজন সম্পর্কে প্রকল্পটির আইসিটি ম্যানেজার তামিম মোস্তফা বলেন, বিল-মেলিন্দা গেটস ফাউন্ডেশনের সহায়তায় দেশের পাবলিক লাইব্রেরিকে আরো আধুনিকায়ন করা, সবার জন্য তথ্য পাওয়া এবং জ্ঞান অর্জনের সুযোগ বৃদ্ধি করার জন্য এই প্রকল্প চালু হয়েছে। এই জন্যে দেশে ৩০টি আদর্শ লাইব্রেরি ও একটি ই-লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করা হবে এবং আরো ৩৯টি লাইব্রেরিতে সেবার মান উন্নয়ন করবে ব্রিটিশ কাউন্সিল। ইতিমধ্যে সরকারের গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের সঙ্গে সমঝোতার ভিত্তিতে কাজ করছে তারা। সেই প্রকল্পের অংশ হিসেবে বাংলাদেশের ২৫টি নির্বাচিত জেলায় পাবলিক লাইব্রেরিগুলোতে কানো কম্পিউটার দিয়ে স্কুল শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং শেখানোর জন্য কর্মশালা আয়োজন করা হবে।

কানো কম্পিউটার রাসবেরি পাই দিয়ে তৈরি ও লিনাক্স বেসড অপারেটিং সিস্টেমে পরিচালিত একটি বিশেষ কম্পিউটার যেটিতে সহজে প্রোগ্রামিং শেখার জন্য বিভিন্ন ব্লক বেসড প্রোগ্রামিং অ্যাপ্লিকেশন ও গেম তৈরি করা আছে। কানো কম্পিউটারের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে মাইক্রোবিট নামক একটি খুদে প্রোগ্রামেবল কম্পিউটারের। মাইক্রোবিট কম্পিউটারের মাধ্যমে নিজেরা প্রোগ্রামিং করে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সেন্সরের ব্যবহার, একাধিক মাইক্রোবিটের মধ্যে যোগাযোগ ও আরো বিভিন্ন কাজ করতে পারবে।

এই প্রকল্পে একাডেমিক ও ভলান্টিয়ার সাপোর্ট প্রদান করবে বিডিওএসএন। বিডিওএসএনের কেন্দ্রীয় এবং আঞ্চলিক স্বেচ্ছাসেবক দল এই জেলাগুলোতে শিক্ষার্থীদের কানো কম্পিউটারের মাধ্যমে প্রোগ্রামিং শিখতে পাবলিক লাইব্রেরিগুলোতে বিভিন্ন কর্মশালা পরিচালনা করবে ক্রমান্বয়ে। এছাড়া এ সংক্রান্ত ইংরেজি নির্দেশিকাগুলো বাংলাতে রূপান্তরের কাজে সহায়তা করবে।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আমিনুল হাকিম, গ্রামীণফোনের কর্পোরেট ব্যবসার উপ-পরিচালক নাসের ইউসুফ, ব্রিটিশ কাউন্সিলের লাইব্ররি আনলিমিটেডের টেকনিক্যাল লিড ড. টিমোথি গ্রিন, বিডিওএসএনের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, সহ-সম্পাদক নুরুন্নবী চৌধুরী প্রমুখ।

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা পাবলিক লাইব্রেরির কর্মশালার মাধ্যমে এ আয়োজন বিস্তৃত পরিসরে ছড়িয়ে পড়বে।

x

Check Also

সর্বস্তরের শিক্ষার্থীর জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট দাবি

স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত সর্বস্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট সুবিধা দেওয়ার দাবি জানিয়েছে অভিভাবক ঐক্য ফোরাম। বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এক বিবৃতিতে ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. জিয়াউল কবির বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদেরকে নামমাত্র মূল্যে ইন্টারনেট ...

হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট সুরক্ষার ৪ উপায়

২০০ কোটির বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ নিঃসন্দেহে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় অ্যাপ। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এটি হ্যাকারদের লক্ষ্যবস্তুতে রয়েছে। নানা কূটকৌশলের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট হ্যাকের চেষ্টায় সদা তৎপর থাকে হ্যাকাররা। তবে সাইবার অপরাধীদের কবল থেকে ...

ই-ভ্যালির ব্যবসা পর্যালোচনায় ই-ক্যাবের কমিটি

ই-ভ্যালির ব্যবসা পদ্ধতি পর্যালোচনা করতে ৭ সদস্যের পর্যালোচনা কমিটি গঠন করেছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। সাম্প্রতিক সময়ে ই-ক্যাবের সদস্য প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি সম্পর্কে পত্রিকায় প্রতিবেদন এবং বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের তথ্য চাওয়ার আলোকে এই কমিটি গঠন ...

শিরোনামঃ