পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি > রাসবেরি পাই ৪ কম্পিউটারে যা থাকছে

রাসবেরি পাই ৪ কম্পিউটারে যা থাকছে

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : শিক্ষার্থীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় সস্তা দামের ক্ষুদ্র কম্পিউটার ‘রাসবেরি পাই’। নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রাসবেরি ফাউন্ডেশন এবার জনপ্রিয় এই সিঙ্গেল বোর্ড কম্পিউটারটির নতুন মডেল ‘রাসবেরি পাই ৪’ উন্মোচন করেছে।

ডিজাইনের দিক থেকে আগের ফ্ল্যাগশিপ মডেল রাসবেরি পাই ৩ মডেল বি প্লাস-এর মতোই নতুন রাসবেরি পাই ৪। তবে ফিচারে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। যার শুরুটা হয়েছে দ্রুতগতির প্রসেসর দিয়ে। এর প্রসেসর কোরটেক্স-৭২ (১.৫ গিগাহার্জ গতির কোয়াড কোর ৬৪ বিট)। এছাড়া রাসবেরির আগের ভার্সনগুলো ৫১২ মেগাবাইট র‌্যাম অথবা ১ গিগাবাইট র‌্যামের হয়ে থাকলেও এই প্রথমবারের মতো আপনি চাইলে আরো বেশি র‌্যামের ভার্সন ব্যবহার করতে পারবেন। রাসবেরি পাই ৪ কম্পিউটারের প্রাথমিক মডেলটি ১ গিগাবাইট র‌্যামের। পাশাপাশি বিকল্প হিসেবে ২ গিগাবাইট র‌্যাম এমনকি ৪ গিগাবাইট র‌্যাম সমৃদ্ধ মডেলও রয়েছে। এক্ষেত্রে র‌্যামের ডাটা ট্রান্সফার রেটও হবে দ্রুতগতির- এলপিডিডিআর২ থেকে এলপিডিডিআর৪।

কানেক্টিভিটির ক্ষেত্রেও নতুন কম্পিউটারটিতে বড় পরিবর্তন আনা হয়েছে। রাসবেরি পাই ৪-এ মিলবে প্রকৃত গিগাবিট ইথারনেট (আগের মতো ইউএসবি ২.০ ভিত্তিক ইথারনেট না)। এছাড়া এতে ২টি ইউএসবি ৩.০ পোর্ট এবং ২টি ইউএসবি ২.০ পোর্ট থাকছে। ব্যবহার করা যাবে ইউএসবি সি পোর্ট। ব্লুটুথ প্রযুক্তিও আপডেট করা হয়েছে। ব্লুটুথ ৪.২ এর পরিবর্তে রাসবেরি পাই ৪ কম্পিউটারে থাকছে ব্লুটুথ ৫.০।

কম্পিউটারটির আরেকটি উল্লেখযোগ্য পরবর্তন হচ্ছে, বড় আকৃতির এইচডিএমআই পোর্ট বাতিল করা হয়েছে। এর পরিবর্তে থাকছে ক্ষুদ্র আকৃতির ২টি মাইক্রো এইচডিএমআই পোর্ট। ফলে একটি রাসবেরি কম্পিউটারেই এবার দুটি ফোরকে ডিসপ্লে যুক্ত করা যাবে। প্রজেক্টর সংযোগের জন্য থাকছে ৪০ পিনের জিপিআইও।

আজ সোমবার রাসবেরি ফাউন্ডেশন তাদের নতুন রাসবেরি ৪ কম্পিউটার উন্মোচন করেছে। ১ জিবি র‌্যামের মডেলটির মূল্য ৩৫ ডলার, ২ জিবি র‌্যামের মডেলটির মূল্য ৪৫ ডলার এবং ৪ জিবি র‌্যামের মডেলটির মূল্য ৫৫ ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিকল্প কম্পিউটার হিসেবে বিশ্বজুড়ে আলোচিত নাম রাসবেরি পাই। ক্রেডিট কার্ড আকৃতির একটি বোর্ডের মধ্যে কম্পিউটারের আস্ত একটি সিপিইউ বসিয়ে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেয় রাসবেরি ফাউন্ডেশন। রাসবেরি পাই-এর যাত্রা শুরু হয়েছিল শিশু-কিশোরদের প্রোগ্রামিং শেখার কম্পিউটার হিসেবে। কিন্তু বর্তমানে শুধু প্রোগ্রামিংই নয়, রোবট তৈরি সহ বিভিন্ন ধরনের প্রজেক্টে ব্যবহার হচ্ছে এই ক্ষুদ্র কম্পিউটার। হোম থিয়েটার পিসি হিসেবে, লো পাওয়ার ডেস্কটপ কম্পিউটার হিসেবে এবং ছাত্রদের থেকে শুরু করে ব্যবসার বিভিন্ন কাজে এর ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে। আকারে ছোট হওয়ায় সহজেই পকেটে করে কম্পিউটারটি যেখানে সেখানে বহন করা যায়।

তথ্যসূত্র : টেকক্র্যাঞ্চ

x

Check Also

বিপজ্জনক হয়ে উঠছে গুগল ম্যাপস

প্রতি মাসে হাজার হাজার ভুয়া অ্যাকাউন্ট যুক্ত হচ্ছে গুগল ম্যাপসে। ইতিমধ্যেই প্রায় ১১ মিলিয়ন ভুয়া ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের তালিকা এবং ফোন নম্বর যুক্ত হয়েছে এতে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। তালিকাভুক্ত ...

নাসা ভ্রমণে যাচ্ছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দল

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি প্রতিবেদক : নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮ প্রতিযোগিতার ৬টি ক্যাটাগরির বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ৬টি দল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার ভ্রমণ এবং ফ্যালকন-নাইন স্পেস শাটলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি নাসা ...

নিজস্ব ভার্চুয়াল মুদ্রার ঘোষণা দিল ফেসবুক

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভাচুর্য়াল মুদ্রার জগতে ফেসবুকের পদার্পণের দীর্ঘদিনের যে গুঞ্জন, উচ্চাকাঙ্ক্ষী সেই প্রকল্পকে অবশেষে বাস্তবে রূপ দিতে যাচ্ছে কোম্পানিটি। আজ মঙ্গলবার ফেসবুক তাদের ডিসেন্ট্রালাইজড ক্রিপ্টোকারেন্সি হিসেবে ‘লিবরা’ চালু করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে। ...

শিরোনামঃ