পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি > যে রোবট রিকশা টানে…

যে রোবট রিকশা টানে…

রোবট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোস্টন ডায়নামিক্স এর আগেও ‘স্পট মিনি’ নামের কুকুর সদৃশ এই রোবটকে নিয়ে নানা নিরীক্ষা চালিয়েছে। বিখ্যাত শো মিথবাস্টারের উপস্থাপক অ্যাডাম স্যাভেজকে দিয়ে এই রোবটকে পুলিশের কিছু বাঁধা পেরোনোর ট্রেনিংও করিয়েছিল।

এবার অ্যাডাম স্যাভেজ বসে ছিলেন ১৮০০ সালের দিকে প্রচলিত হাতে টানা রিকশায় আর তার চালক ছিল স্পট মিনি নামের কুকুর সদৃশ রোবটটি। হাতে টানা রিকশা বাংলাদেশে সেভাবে প্রচলিত না থাকলেও ভারতের কলকাতায় এখনও দেখা যায়। আমাদের দেশের রিকশা সাধারণত বাইসাইকেলের মতো করেই চালানো হয়।

বোস্টন ডায়নামিক্স চাচ্ছে তাদের এই রোবটকে প্রায় সকল কাজের উপযোগী করে তুলতে। আর সে কারণেই একে দিয়ে করানো হচ্ছে নানা নিরীক্ষা। তাই বলে রিকশা টানা? এতোদিন ঝুঁকিপূর্ণ কাজে মানুষের বিকল্প হিসেবে রোবটের ব্যবহার মানুষ দেখে এসেছে। দেখে এসেছে কষ্টসাধ্য কাজেও মানুষের বিকল্প হিসেবে রোবটের ব্যবহার। রিকশা চালানো নিঃসন্দেহে কষ্টের কাজ এটা নিয়ে বিতর্ক নেই। কিন্তু তাই বলে লাখ লাখ ডলার ব্যয় করে রোবট কিনে কেউ নিশ্চয়ই রিকশা চালানোর জন্য ব্যবহার করবে না।

চার পায়ের এই রোবটের ওজন হয় ৫৫ থেকে ৬০ পাউন্ড বা ২৫ থেকে ৩০ কেজি  আর এটা ৩১ পাউন্ড বা ১৪ কেজি ওজন বহন করতে সক্ষম। এটা সম্পূর্ণ ইলেকট্রিক রোবট এবং একবার চার্জ দিলে ৯০ মিনিট চলতে বা কাজ করতে পারে।

প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, রোবটটি পাকা রাস্তা এবং এবড়ো থেবড়ো রাস্তা দিয়ে অ্যাডাম স্যাভেজকে নিয়ে দিব্যি রিকশা টেনে নিয়ে যাচ্ছে। আগেই বলা হয়েছে, এতো দামি রোবট কেউ রিকশা টানার জন্য ব্যবহার করবে না। আসলে সকল কাজের কাজী প্রমাণের জন্যই স্পট মিনিকে দিয়ে এসব করে দেখানো হচ্ছে।


x

Check Also

বয়স্ক মানুষের নাক করোনার ঝুঁকি বাড়ায়: গবেষণা

শিশুদের তুলনায় প্রাপ্তবয়স্ক মানুষদের নাক তাদেরকে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আরো বেশি ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। নতুন একটি গবেষণায় এমনটা দেখা গেছে। শিশুদের মধ্যে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা কেন কম, তা নতুন এই গবেষণার ফলাফল সম্ভবত ব্যাখা করছে। আমেরিকান ...

লকডাউন পর্বে প্রবেশ করেছে সূর্য! (ভিডিও)

পৃথিবীর দুর্যোগ যেন কাটছেই না! বিশ্ব এখন মহামারির কবলে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে চলছে লকডাউন। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন বিশ্ববাসীর মতো সূর্যেও লকডাউন পিরিয়ড শুরু হয়েছে! বিষয়টি তাদের কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে। কেননা সূর্য লকডাউনে যাওয়া অর্থাৎ অপেক্ষাকৃত ...

অ্যাজমা রোগীদের মাস্ক পরা উচিত নয়

অ্যাজমা (হাঁপানি) বা ফুসফুসের অন্যান্য রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ফেস মাস্ক পরা এড়ানো উচিত বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। মহামারি করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির মাধ্যমে ছড়াচ্ছে। তাই অনেক দেশেই নাগরিকদের মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের ...

শিরোনামঃ