পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি > ডিজিটাল অর্থনীতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ : পলক

ডিজিটাল অর্থনীতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ : পলক

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :

শিক্ষা, চিকিৎসা, কৃষিসহ সকল ক্ষেত্রে ইন্টারনেট প্লাস স্ট্রাটেজির প্রয়োগের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করা, সময়োপযোগী প্রশিক্ষণ প্রদান ও অবকাঠামো সৃষ্টির মাধ্যমে আইটি/আইটিএস খাতে শিক্ষিত তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা, হাই-টেক সিটি, সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক, আইটি পার্ক স্থাপন ও তথ্যপ্রযুক্তি-কেন্দ্রিক বাণিজ্য প্রসারে ব্যবসায়ীদের প্রণোদনা প্রদান এবং সর্বোপরি দেশব্যাপী প্রয়োজনীয় ডিজিটাল অবকাঠামো সৃষ্টির মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের সুচিন্তিত কার্যক্রম বাস্তবায়ন এগিয়ে চলেছে।

১৭ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিকালে (সুইজারল্যান্ডের স্থানীয় সময় সকাল ১০.৩০টা) সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ৪৭তম বার্ষিক সভার ‘ডিজিটাল ইকোনমি অ্যান্ড সোসাইটি ইন সাউথ এশিয়া’ শীর্ষক এক মিনিস্ট্রারিয়েল আলোচনায় অংশ নিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে সরকারের এ সকল কর্মকান্ড বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত বলেই ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল বলে বিবেচিত হচ্ছে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ডিজিটাল অর্থনীতির পথে।

নানা ধরনের প্রশিক্ষণ ও উদ্যোক্তাদের জন্য গৃহিত কার্যক্রম এবং দেশব্যাপী অবকাঠামোগত উন্নয়নের সার্বিক চিত্র তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী এ সময় বলেন, ডিজিটাল ইনক্লুশন প্রক্রিয়ায় আমরা সমাজের সকল অংশের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার মাধ্যমে একটি দক্ষ জনগোষ্ঠী সৃষ্টি করছি, গড়ে তুলছি একটি যুগোপযোগী স্টার্ট-আপ কালচার। ফলে, আমাদের উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকগণ ৪র্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে সক্ষম।

অনলাইন ট্যাক্স রিটার্ন, অনলাইন টেন্ডারিং, অনলাইন ও মোবাইল ব্যাংকিং, ইউটিলিটি বিলসহ প্রায় সকল সরকারি সেবার বিল অনলাইনে প্রদানের মাধ্যমে বর্তমানে ৬৯ শতাংশ সরকারি লেনদেন অনলাইনেই পরিশোধ করা হচ্ছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ডিজিটাল ইকোনমির যথাযথ প্রয়োগ ও প্রতিফলনের অন্যতম উদাহরণ বাংলাদেশ। আগামী দিনে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় এই ডিজিটাল ইকোনমির সর্বোকৃষ্ট উদাহরণ হবে।

উক্ত মিনিস্ট্রারিয়েল আলোচনায় আরো অংশ নেন শ্রীলংকার টেলিকমিউনিকেশন অ্যান্ড ডিজিটাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার মন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো, পাকিস্থানের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী আনুশা রহমান খান, ইন্টারনেট ম্যাটারস এর লিন সেন্ট আমুর, ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের ডিজিটাল ইকোনমি অ্যান্ড সোসাইটির নির্বাহী চেয়ারম্যানের সিনিয়র উপদেষ্টা ফাডি ছেহাডি প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১২ মার্চ ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম জুনাইদ আহমেদ পলককে ‘ইয়ং গ্লোবাল লিডার’ মনোনীত করে।

x

Check Also

ভয়েস টাইপিংয়ের দারুণ কার্যকরী একটি অ্যাপ

একটা সময় ছিল টাইপরাইটারের। সে সময় মানুষ চাকরির সিভিতে বাড়তি যোগ্যতা হিসেবে লিখতো টাইপরাইটিং দক্ষতা। এরপরে এলো কম্পিউটার, এখানেও টাইপিং স্পিড চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে পার্থক্য গড়ে দিতো। মানুষ ওয়ার্ড প্রসেসর বা এক্সেলের কাজ আলাদা অফিস কোর্সে ...

সাইবার হামলার রেড জোনে বাংলাদেশ

মহামারির সময় হ্যাকাররা বসে নেই বরং তারা আরো বেশি সক্রিয়। কারণ এখন প্রায় সবাই জেনে না জেনে টেকনোলজিগুলো ব্যবহার করছে। সম্প্রতি ইন্টারপোল থেকেও বিশ্বব্যাপী সাইবার অ্যাটাকের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ রয়েছে সাইবার ...

করোনা: হর্সশু বাদুড় নিয়ে থাইল্যান্ডে গবেষণা

থাইল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা করোনাভাইরাসের জন্য হর্সশু বাদুড় নিয়ে গবেষণা করছেন। শনিবার (১৩ জুন) এক সরকারি বিবৃতিতে এই তথ্য জানানো হয়। এই বাদুড় দেশটিতে করোনা মহামারির কারণ হয়ে উঠতে পারে, এমন উদ্বেগ থেকে এই গবেষণা। খবর রয়টার্সের। ...

শিরোনামঃ