পরীক্ষামূলক প্রকাশনা - সাইট নির্মাণাধীন

Home > বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি > মানুষের মস্তিষ্কে ইন্টারনেট সংযুক্ত করলেন বিজ্ঞানীরা

মানুষের মস্তিষ্কে ইন্টারনেট সংযুক্ত করলেন বিজ্ঞানীরা

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :

দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গের উইটস ইউনিভার্সিটির গবেষকদের একটি দল বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ক্ষেত্রে একটি বড় সাফল্য অর্জন করেছেন।

মেডিক্যাল এক্সপ্রেসে প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, প্রথমবারের মতো গবেষকরা মানুষের মস্তিষ্ককে সত্যিকার ভাবেই ইন্টারনেট সংযোগ করার একটি উপায় উদ্ভাবন করেছেন।

এই প্রকল্পটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ব্রেইনটারনেট’ এবং এটি মূলত মস্তিষ্কে ইন্টারনেট অব থিংসের (আইওওটি) মাধ্যমে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব সংযোগ ঘটাবে।

এই প্রকল্পটির কাজ হচ্ছে, ব্যবহারকারীর মস্তিষ্কে সংযুক্ত একটি ইমোটিভ ইইজি ডিভাইস থেকে ইইজি সংকেত সংগ্রহ করবে। এই সংকেত রাসবেরি পাই কম্পিউটারে প্রেরণ করবে। যা প্রোগ্রামিং অ্যাপ্লিকেশন ইন্টারফেসের মাধ্যমে লাইভ স্ট্রিমিং হবে এবং মস্তিষ্কের সংকেতগুলো ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রদর্শিত হওয়ায়, কার্যকাপগুলো যেকেউ দেখতে পাবে।

উইটস স্কুল অব ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইনফরমেশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রভাষক এবং প্রকল্পের সুপারভাইজার অ্যাডাম পেনটেনোউইজ বলেন, ‘ব্রেইন-কম্পিউটার ইন্টারফেস সিস্টেমগুলোর মধ্যে ব্রেইনটারনেট চিকিৎসাবিজ্ঞানে এক নতুন দিগন্ত। মানুষের মস্তিষ্কে কিভাবে কাজ করে এবং তথ্য কিভাবে প্রসেস করে তা বোঝার সহজ উপায়ের অভাব রয়েছে। ব্রেইনটারনেট একজন ব্যক্তির নিজের মস্তিষ্কের বোধগম্যতা এবং অন্যদের মস্তিষ্ককে বোঝা সহজ করবে। এটি মস্তিষ্কের কার্যকলাপ ক্রমাগত পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি কিছু ইন্টারঅ্যাকটিভিটিতে নজর রাখতে সক্ষম।’

পেনটেনোউইজ বলেন, এটি এই প্রকল্পের কেবল সম্ভাব্য শুরু। ব্যবহারকারী এবং তার মস্তিষ্কের মধ্যের আরো ইন্টারঅ্যাকটিভ বিষয়গুলো জানার লক্ষ্যে তারা গবেষণা করে চলেছেন।

এই ফাংশনের কিছু তথ্যে ইতিমধ্যে গবেষকরা ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়েছেন কিন্তু তা খুবই সামান্য। পেনটেনোউইজ বলেন, ‘ব্রেইনটারনেটকে আরো উন্নত করা যেতে পারে যেন স্মার্টফোনের অ্যাপের মাধ্যমে তথ্য রেকর্ড করতে পারে, যা মেশিন-লার্নিং অ্যালগরিদমের ডেটা প্রদান করবে। ভবিষ্যতে হয়তো মস্তিষ্কের কার্যকলাপগুলো যেমন পাওয়া যেতে পারে তেমনি মস্তিষ্কে পাঠানোও যেতে পারে।’

এই প্রকল্পের ভবিষ্যত গবেষণা মেশিন-লানিং এবং ব্রেইন-কম্পিউটার ইন্টারফেসের ক্ষেত্রে বিরাট সাফল্য এতে দিতে পারে। উদাহারণস্বরূপ এলন মাস্কের ‘নিউরাল লেস’ কিংবা ব্রায়ান জনসনের ‘কারনেল’ প্রকল্প।

ব্রেইনটারনেট প্রকল্পের মাধ্যমে ডেটা সংগ্রহের মাধ্যমে ভবিষ্যতে হয়তো সহজেই বোঝা যাবে যে, আমাদের মস্তিষ্ক কিভাবে কাজ করে এবং সেই জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে মস্তিষ্কের শক্তি বাড়ানো সম্ভব হবে।

তথ্যসূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

x

Check Also

সর্বস্তরের শিক্ষার্থীর জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট দাবি

স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত সর্বস্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেট সুবিধা দেওয়ার দাবি জানিয়েছে অভিভাবক ঐক্য ফোরাম। বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এক বিবৃতিতে ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. জিয়াউল কবির বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদেরকে নামমাত্র মূল্যে ইন্টারনেট ...

হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট সুরক্ষার ৪ উপায়

২০০ কোটির বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ নিঃসন্দেহে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় অ্যাপ। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এটি হ্যাকারদের লক্ষ্যবস্তুতে রয়েছে। নানা কূটকৌশলের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট হ্যাকের চেষ্টায় সদা তৎপর থাকে হ্যাকাররা। তবে সাইবার অপরাধীদের কবল থেকে ...

ই-ভ্যালির ব্যবসা পর্যালোচনায় ই-ক্যাবের কমিটি

ই-ভ্যালির ব্যবসা পদ্ধতি পর্যালোচনা করতে ৭ সদস্যের পর্যালোচনা কমিটি গঠন করেছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)। সাম্প্রতিক সময়ে ই-ক্যাবের সদস্য প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি সম্পর্কে পত্রিকায় প্রতিবেদন এবং বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের তথ্য চাওয়ার আলোকে এই কমিটি গঠন ...

শিরোনামঃ